ঢাকা, শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২১ অক্টোবর ২০২০, ১৫:২৪

প্রিন্ট

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জোড়া খুন: ১২ আসামি জামিনে, বাকিরা অধরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জোড়া খুন: ১২ আসামি জামিনে, বাকিরা অধরা
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে জোড়া খুনের মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবি করেছে তার পরিবারের সদস্যরা। বুধবার সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করে করেন তারা।

২০১৭ সালের ১ মার্চ রাতে নবীনগর উপজেলার জগন্নাথপুরে সাবেক বিজিবি সদস্য ইয়াছিন মিয়া ও তার ভায়েরা ভাই খন্দকার এনামুল হককে হত্যা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে নিহত খন্দকার এনামুল হকের স্ত্রী তাসলিমা আক্তার বলেন, এই জোড়া হত্যাকাণ্ডের পর থানায় মামলা নেয়নি। পরে আদালতে ২৬ জনকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। মামলার পর আদালত সিআইডিকে মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেন।

সিআইডি তদন্ত প্রতিবেদনে ২৬ জন আসামি ছাড়াও আরও দুইজন আসামিসহ মোট ২৮ জনকে আসামি করা হয়। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর আদালত সকল আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

এর মধ্যে ১২ আসামি উচ্চ আদালত থেকে ২০১৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জামিন পান। বাকি ১৬ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হলেও এখনো তাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না। এমনকি পুলিশ সুপার নির্দেশ প্রদান করলেও নবীনগর থানা পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার করছে না বলে অভিযোগ পরিবারের।

তাছলিমা আক্তার আরও বলেন, সিআইডির তদন্ত প্রতিবেদনের ৩ নং আসামি সাতমোড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসুদ রানা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ হালিমের ভাই হওয়ায় আসামিদের গ্রেপ্তারে প্রভাব বিস্তার করছে। পাশাপাশি মামলাটি উঠিয়ে নিতে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে আসামিপক্ষের লোকজনেরা। ফলে আত্মরক্ষায় জেলা শহরে সন্তানদের নিয়ে বাসা ভাড়া করে বসবাস করছি। আমি আমার স্বামী ও ভগ্নিপতি হত্যার আসামি গ্রেপ্তার এবং বিচার দাবি করছি।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত সাবেক বিজিবি সদস্য ইয়াছিন মিয়ার স্ত্রী নাসিমা বেগম ও সন্তানেরা উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত