ঢাকা, শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৮ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০২ মার্চ ২০২১, ২৩:৩৫

প্রিন্ট

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাথরুমে রোগীর ঝুলন্ত মরদেহ

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বাথরুমে রোগীর ঝুলন্ত মরদেহ
ছবি প্রতীকী

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লার হোমনায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মহিলা ওয়ার্ডের বাথরুম থেকে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় সাজেদা বেগম (৬২) নামে এক মানসিক রোগীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে এটিকে আত্মহত্যা বলে ধারণা করছে পুলিশ।

সাজেদা বেগম উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের ডহরগোপ গ্রামের মৃত শাহাব উদ্দিনের মেয়ে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত ১৮ জানুয়ারি ওই বৃদ্ধা মানসিক রোগী সাজেদা বেগমকে রাস্তা থেকে তুলে এনে এক নারী হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। তখন তিনি চরম শ্বাসকষ্টেও ভুগছিলেন। এরপর থেকে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় বিভিন্ন সময় অস্বাভাবিক আচরণ করতেন বলে জানান অন্য রোগীরা।

মঙ্গলবার বিকেলে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে মহিলা ওয়ার্ডের বাথরুমে যান সাজেদা বেগম। দীর্ঘ সময় দরজা বন্ধ থাকায় পুলিশে খবর দেয়া হলে পুলিশ এসে মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে।

সাবেক ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান মো. কামরুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন,সাজেদা বেগম আমার দূরসম্পর্কের ফুপু। তিনি মানসিক রোগী ছিলেন। কে বা কারা হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে আমি জানি না। আজ শুনেছি দুপুরে তিনি হাসপাতালে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

হোমনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুছ ছালাম সিকদার বলেন, গত জানুয়ারি মাসে এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী রাস্তায় পরে থাকা দেখে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করান। তার মানসিক সমস্যা ও অ্যাজমার সমস্যা ছিল।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (হোমনা সার্কেল) মো. ফজলুল করিম বলেন, প্রাথমিকভাবে ওই নারী আত্মহত্যা করেছে বলেই ধারণা করছি। মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রোগী আত্মহত্যা করেছে। তবে লাশ ময়নাতদন্তের বিস্তারিত জানা যাবে।

আরও পড়ুন- পরকীয়া প্রেমের জেরে প্রেমিকের বাড়িতে দুই সন্তানের মা

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত