ঢাকা, বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৬ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩২

প্রিন্ট

চোরচক্রের সদস্য উজ্জ্বলের মুক্তি চাই পোস্টারে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়

চোরচক্রের সদস্য উজ্জ্বলের মুক্তি চাই পোস্টারে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়
ছবি: প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের সেকেন্ড ইন-কমান্ড আন্তঃজেলা গাড়ি চোরচক্রের সক্রিয় সদস্য এবং উপজেলা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক হৃদয় পাঠান উজ্জ্বলের মুক্তি চেয়ে পোস্টার প্রকাশ করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। তবে এ পোস্টারটি ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়নি বলে দাবি করেছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি অনু মোহাম্মদ সুমন।

এদিকে, পোস্টার প্রকাশের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার মুখে পড়ে ছাত্রলীগ।

রাতের আঁধারে উজ্জ্বলের নিঃশর্ত মুক্তি চেয়ে মাধবপুর উপজেলা জুড়ে পোস্টার লাগানো হয়। পোস্টারে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদ ও প্রধানমন্ত্রীর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের ছবি সহকারে মুজিব লোগো ব্যবহার করা হয়।

পোস্টারে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ মাধবপুর পৌর শাখার সাবেক সফল সভাপতি ও বর্তমান মাধবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, তৃণমূল ছাত্র রাজনীতির আইডল, স্লোগান মাস্টার ও রাজপথের অপরাজিত নেতা হৃদয় পাঠান উজ্জ্বলের উপর ঢাকায় করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তি চাই। প্রচারে: বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, মাধবপুর উপজেলা শাখা।

পোস্টারে নিচে পোস্টারটি কোন ছাপাখানা থেকে ছাপানো হয়েছে সেটি উল্লেখ করা হয়নি। পোস্টারটি প্রকাশের পর থেকেই মাধবপুর উপজেলা ছাত্রলীগ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্টারটির ছবি আপলোড করলে মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় এবং শুরু হয় নানা রকম মন্তব্য সমালোচনাসহ কটাক্ষ মন্তব্যও করেন অনেকে।

এ ব্যাপারে, মাধবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি অনু মোহাম্মদ সুমন যোগাযোগ করলে তিনি জানান, কে বা কারা এ পোস্টার ছাপিয়েছে তা আমরা উপজেলা ছাত্রলীগ জানি না। ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এমন কোনো পোস্টার ছাপানো হয়নি। তিনি আরো বলেন, আমি পোস্টার দেখেই আমার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে জানিয়েছি এই পোস্টার উপজেলা ছাত্রলীগ করেনি এবং ২৪ ঘণ্টার ভিতরে সকল পোস্টারগুলো না সরালে উপজেলা ছাত্রলীগ আইনানুগভাবে ব্যবস্থা নেবে।

উল্লেখ্য, গাড়ি চোরচক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত ১৫ মার্চ মাধবপুরের নিজ বাড়ি থেকে উজ্জ্বলকে চুরির গাড়়িসহ আটক করে ঢাকা গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ দল। এ ঘটনায় উজ্জ্বল গাড়ি চোরচক্রের সঙ্গে জড়িত বলে বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

পরদিনই দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বলকে মাধবপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে অব্যাহতি দেয়। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৮ মার্চ বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্পাদক উজ্জ্বলকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করেন এবং উপর্যুপড়ি তার সদস্য পদ বাতিলসহ সিদ্ধান্ত দেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত