ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ২৯ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৪৮

প্রিন্ট

৯ জেলার রেলপথে মাসে নিহত অর্ধশত: পুলিশ

৯ জেলার রেলপথে মাসে নিহত অর্ধশত: পুলিশ
গাজীপুর প্রতিনিধি

রেলওয়ে পুলিশ জানিয়েছে, ঢাকা-ময়মনসিংহসহ আশপাশের নয় জেলার রেলপথে প্রতি মাসে অর্ধশত লোকের মৃত্যু হয়।

বুধবার গাজীপরের জয়দেপুর রেলওয়ে জংশন ও কালিয়াকৈর হাইটেক পার্ক স্টেশনে রেলওয়ে পুলিশের সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানিয়েছেন ঢাকা রেলওয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহিউল ইসলাম।

তিনি বলেন, ঢাকা রেলওয়ে জেলার অন্তর্ভুক্ত ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোণা ও নরসিংদীতে প্রতি মাসে গড়ে ৫০ জনের মতো লোক মারা যান। মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে করতে রেলপথ দিয়ে চলাচলের সময় ট্রেনের ধাক্কায় বা ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে এবং ছাদ থেকে নিচে পড়ে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এছাড়া আহত হন অনেকে। অনেক সময় ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের কারণেও যাত্রীরা গুরুতর জখম হন।

মাহিউল বলেন, অনেক সময় শিশু-কিশোররা রেলপথের পাথর খেলার ছলেই ট্রেনে ছুড়ে থাকে। এতে মাথা, কানে বা স্পর্শকাতর স্থানে লেগে যাত্রীরা আহত হয়। অনেক সময় তারা মারাও যায়। এছাড়া অনেকে গরমের সময় বাতাস খেতে গিয়ে রেলপথে বসে থাকে। অনেকে কানে মোবাইল ফোন বা ইয়ার ফোন লাগিয়ে গান শোনে বা রেলপথে হাঁটে। হাঁটতে গিয়ে বা রেলপথ পার হওয়ার সময় ট্রেনের হুইসেল তারা শুনতে পায় না। ফলে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে প্রাণ হারায়।

তিনি বলেন, এছাড়া ট্রেনের ছাদে অতিরিক্ত যাত্রী ভ্রমণ করতে গিয়ে কিংবা ছিনতাইকারীদের খপ্পরে ছাদ থেকে নিচে পড়ে নিহত হয়। এভাবে প্রতি মাসে শুধু ঢাকা রেলওয়ে জেলায় ৫০ জনের মতো লোক মারা যায়। তাই বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে যাত্রী, রেলওয়ে পুলিশ, কমিউনিটি পুলিশসহ সংশ্লিষ্টদের সচেতন করতে উদ্যোগ নিয়েছে রেলওয়ে পুলিশ।

ঢাকা রেলওয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, এ বিষয়টি অনেকেই জানে না। সেখানে কেউ মারা গেলে উল্টো তার বিরুদ্ধেই মামলা হয়। আর সেখানকার পাথর ব্যবহার করে শুরু হয় পাথর খেলা, ঢিল প্রতিযোগিতা। এগুলো সরকারি সম্পদ। এ সম্পদ রক্ষা করতে সবাইকে সচেতন ও সচেষ্ট হতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/জেডআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত