ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ৩১ আগস্ট ২০১৯, ১৭:৫৭

প্রিন্ট

বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিরা এখনো ষড়যন্ত্র করছে: এমপি আনোয়ার খান

বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিরা এখনো ষড়যন্ত্র করছে: এমপি আনোয়ার খান
রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন খান বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে সপরিবারে হত্যায় জড়িত যারা এখনো বিদেশে পলাতক রয়েছে, সেসব খুনিদের অবিলম্বে দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করতে হবে। খুনিরা বিদেশে বসে বাংলাদেশকে ধংস করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা বাংলাদেশ পেতাম না। খুনিরা বিদেশে বসে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে বিশ্বনন্দিত নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু রাখে আল্লাহ্ মারে কে। মহান রাব্বুল আলামীনের অশেষ কৃপায় শেখ হাসিনা প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন। তাই কালক্ষেপণ না করে ওইসব খুনিদের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকর করতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান এবং উপজেলার ১নং কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের নতুন চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন খানের দায়িত্বভার গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনোয়ার খান এসব কথা বলেন।

শনিবার দুপুরে কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদে এ অনুষ্ঠান হয়।

কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবিদ খানের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন মোল্লার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আকম রুহুল আমিন, রামগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র বেলাল আহম্মেদ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুরাইয়া আক্তার শিউলী, ৩নং ভাদুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদ হোসেন ভূঁইয়া, ৭নং দরবেশপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, ৪নং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শহীদ উল্যা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির হোসেন খোকন, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সৈকত মাহমুদ সামছু, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাইদুর রহমান মামুন, এসএম মোজাম্মেল হক, রামগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও পৌর যুবলীগের আহবায়ক মামুনুর রশিদ আখন্দ, বিআরডিবিএ চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া সুমন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল মাল, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান শুভ প্রমুখ।

ড. আনোয়ার হোসেন খান আরো বলেন , আমার অভিভাবক জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে রামগঞ্জ আসনে মনোনয়ন দিয়েছেন। তাই স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর নৌকা মার্কা নিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছি। আমি গত পাঁচ বছর ধরে রামগঞ্জের জনগণের সাথে থেকে দিনরাত কাজ করেছি। এখনো করে যাচ্ছি। আগস্ট মাস শোকের মাস। তাই ৩১দিন ব্যাপী নেতাকর্মীদের নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছি।

তিনি আরো বলেন, রামগঞ্জের কিছু নেতা বড় বড় পদ নিয়ে ঢাকায় বসে আছেন। কিন্তু তৃনমূল আওয়ামী লীগের সাথে তারা সম্পর্ক রাখে না। তারা জাতীয় কোনো কর্মসূচিতে আসেন না। ঢাকায় বসে নালিশ দেন। আমি তাদের মত করবো না। আমি জনগণের সাথে থেকে কাজ করে যাবো। যেন আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় শতভাগ ভোট পড়ে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত