ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:১৮

প্রিন্ট

রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যান তাফাজ্জলের বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ

রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যান তাফাজ্জলের বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ
রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর ৭নং বামনী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাফাজ্জাল হোসেন মুন্সীর বিরুদ্ধে সরকারি গাছ কর্তন, গ্রামীণ সড়ক পাকা করে দেয়ার নামে এলাকা থেকে টাকা উত্তোলন, এলজিএসপি ও কাবিটার কাজের টাকা আত্মসাৎসহ নানান অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়রা জানান, তাফাজ্জল হোসেন চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার পর ক্ষমতার অপব্যবহার শুরু করেন। দুর্নীতি ও স্বজন প্রীতিসহ সরকারের উন্নয়নের বরাদ্দকৃত অর্থ লোপাট, মনগড়াভাবে সরকারি গাছ কর্তন করে বিক্রয়, পরিষদের বরাদ্দকৃত ৪০ দিনের কর্মসৃজন প্রকল্প, এলজিএসপি, কাবিটা প্রকল্পগুলো সরকারি বিধি উপেক্ষা করেন তিনি। এছাড়াও ইউপি মেম্বারদেরকে প্রকল্পের সভাপতি না করে বরং পরিষদের বাইরের মানুষ দিয়ে প্রকল্প উত্তোলন করেন।

এবিষয়ে ৭নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য জাকির হোসেন পাটওয়ারী বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, টেন্ডার ছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ৪ লাখ টাকার গাছ কর্তন করে চেয়ারম্যান তাফাজ্জাল। এছাড়াও ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে পকেট কমিটির সদস্যদের দিয়ে গ্রামীণ সড়ক পাকা (পিচঢালাই) করে দেবেন বলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা উত্তোলন, পুল ও কালভার্ট করে দেবে বলে প্রায় ১০ লাখ টাকা উত্তোলন, হোল্ডিং ট্যক্সের নামে ব্যপক চাঁদাবাজি, ডিপকল,গরিবের ঘর, জন্মনিবর্ধন, বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, প্রতিবন্ধী, মাতৃকালিনসহ সকল বিষয় থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয় চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন।

বামনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল হুদা বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, সাগরদী বীর মুক্তি যোদ্ধা ফজলুল করিম চৌধুরী সড়ক, নুরমিয়া চৌধুরীসড়কসহ ৮/১০টি রাস্তা পাকা করণ করবে বলে চেয়ারম্যান টাকা উত্তোলন করে। সরকারি কাজ কর্তন করে অন্যত্র বিক্রয় করে তিনি।

এছাড়াও ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদেরও তাকে অর্থ দিয়ে এলাকায় থাকতে হচ্ছে এমন অভিযোগ রয়েছে। দুঃখ করে অনেকেই বলেছেন, নিজের দল ক্ষমতায় অথচ চেয়ারম্যান তাফাজ্জালকে রাস্তার জন্য টাকা চাঁদা দিয়ে এলাকায় থাকতে হয়।

সাবেক চেয়ারম্যান আনছার উল্যা, সালেহ আহম্মদ, বর্তমান ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন, হারুনুর রশিদ,আওয়ামী লীগ নেতা জাফর চৌধুরী চেয়ারম্যানেরর অনিয়ম ও দুর্নীতির সৃষ্ট ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

সব অভিযোগ অস্বীকার করে চেয়ারম্যান তাফাজ্জাল হোসেন মুন্সী বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, আমার বিরুদ্ধে একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত