ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৩৬

প্রিন্ট

সুপারভাইজার আক্তার হত্যার কারণ খুঁজছে পুলিশ

সুপারভাইজার আক্তার হত্যার কারণ খুঁজছে পুলিশ
সুশান্ত সাহা

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর ধলপুর এলাকায় কাউন্টারের সুপারভাইজার আক্তার হোসেন সিকদার (৫০) খুনের কারণ খুঁজছে পুলিশ। ছিনতাই, পূর্ব শত্রুতার জেরসহ নানা বিষয়কে সামনে রেখে তদন্তে নেমেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার রাতেই যাত্রাবাড়ী থানায় অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন নিহতের ছেলে আকাশ সিকদার।

এদিকে ঘটনা স্থলের আসপাশের সিসিটিভির ফুটেজ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফুটেজগুলো বিশ্লেষণ করে হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযানেও নেমেছে পুলিশ। এছাড়াও এ ঘটনায় কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

ময়নাতদন্ত সূত্রে জানা যায়, আক্তারের বুকের বাম পাশে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন ও হাতে কয়েকটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

নিহতের ভাতিজা ইয়াসিন সুলতান রাকিব জানান, গতকাল শনিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে তার চাচা আক্তার হোসেন বাসা থেকে বের হন গোলাপবাগ বাস কাউন্টারে যাওয়ার জন্য। বাসা থেকে বেরিয়ে লিচু বাগান মসজিদের পাশে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাত করে তার সঙ্গে থাকা টাকা ভর্তি হাত ব্যাগ, মানিব্যাগ ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারী লোকজন তাকে পড়ে থাকতে দেখে চিনতে পেরে বাসায় খবর দেয়। এরপরই তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার ব্যাগে কাউন্টারের আনুমানিক ২০/৩০ হাজার টাকা ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম জানান, এ হত্যাকাণ্ড কে বা কারা ঘটিয়েছে সে বিষয়ে এখনো কিছুই জান যায়নি। তাই জড়িত কাউকে আটক বা গ্রেপ্তারও করা হয়নি। সব বিষয় মাথায় রেখে তদন্ত চলছে।

প্রসঙ্গত, গতকাল শনিবার ভোর চারটার দিকে বাসা থেকে হয়ে সায়েদাবাদ বাস কাউন্টারে যাওয়ার সময় লিচু বাগান মসজিদের পাশে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন আক্তার হোসেন সিকদার (৫০)। পরে স্থানীয়রা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়। পরে ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আক্তারের বাড়ি কুমিল্লায়। তিনি ঢাকার ধলপুরে পরিবার নিয়ে থাকতেন। তিনি দুই ছেলের জনক। তিনি যাত্রাবাড়ীর গোলাপবাগে যাতায়াত পরিবহনের বাস কাউন্টারের ম্যানেজার ছিলেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত