ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬ অাপডেট : ৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৩ জুন ২০১৯, ১২:০৮

প্রিন্ট

মার্সেল এসি বিক্রিতে ২১৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি

মার্সেল এসি বিক্রিতে ২১৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি
নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি বছর এয়ার কন্ডিশনার বা এসি বিক্রয়ে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড মার্সেল। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত সময়ে গত বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ২১৬.৫৪ শতাংশ বেশি এসি বিক্রি হয়েছে তাদের।

সোমবার রাজধানীতে মার্সেল করপোরেট অফিসে আয়োজিত ‘সেলিব্রেশন অব বুমিং সেলস অব মার্সেল এয়ার কন্ডিশনার’ প্রোগ্রামে এসব তথ্য জানানো হয়। সেসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক ইভা রিজওয়ানা, এমদাদুল হক সরকার, মো: তানভীর রহমান, ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন ও সিরাজুল ইসলাম, অপারেটিভ ডিরেক্টর প্রকৌশলী ইসহাক রনি, ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মফিজুর রহমান প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে মার্সেলের হেড অব সেলস ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন বলেন, বিগত বছরগুলোর তুলনায় এ বছর গরম পড়েছে বেশি। সেই সঙ্গে দেশব্যাপী এসির চাহিদা বেড়েছে। এদিকে আন্তর্জাতিকমানের অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এসি বাজারে সরবরাহের মাধ্যমে বর্ধিত চাহিদার উল্লেখযোগ্য অংশ পূরণ করতে সক্ষম হয়েছে মার্সেল।

যার প্রমাণ- গত বছরের প্রথম পাঁচ মাস অর্থাৎ জানুয়ারি থেকে মে মাসের তুলনায় চলতি বছরের একই সময়ে মার্সেল এসি বিক্রি বেশি হয়েছে প্রায় ২১৬.৫৪ শতাংশ। এছাড়াও ২০১৮ সালের মে মাসের তুলনায় চলতি বছরের মে’তে এসি বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪৫১ শতাংশ বেশি।

মার্সেল এসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো: তানভীর রহমান জানান, চলতি বছরের শুরুতে স্থানীয় বাজারে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির নতুন মডেলের এসি বাজারে ছেড়েছে মার্সেল। এর মধ্যে রয়েছে ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার, আয়োনাইজার, টার্বো কুলিং মুড, আইওটি বেজড স্মার্ট এসি। এসব এসি দামে যেমন সাশ্রয়ী, তেমনি মানের দিক থেকেও অনেক উন্নত।

তিনি জানান, মার্সেল এসিতে ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি ও ফ্রি ইন্সটলেসন সুবিধার পাশাপাশি ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ১০ বছরের গ্যারান্টি সুবিধা দেয়া হচ্ছে।

মার্সেল এসির চীফ অপারেটিং অফিসার প্রকৌশলী ইসহাক রনি জানান, গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে গ্রাহকরা যে কোনো ব্র্যান্ডের পুরনো এসি জমা দিয়ে মার্সেলের নতুন এসি কিনতে পারছেন। সারা দেশে মার্সেলের যে কোনো শোরুমে পুরনো এসি জমা দিয়ে মার্সেলের নতুন এসি ২৫ শতাংশ ছাড়ে কেনার সুযোগ পাচ্ছেন গ্রাহক। ফলে এসি বিক্রি ব্যাপক বেড়েছে।

এই সুবিধার পাশাপাশি ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ফোরের আওতায় মার্সেল এসি কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই গ্রাহকরা পেতে পারেন লাখ টাকার নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার, এক বছরের বিদ্যুৎ বিলসহ হাজার হাজার ফ্রি পণ্য। এদিকে মার্সেল এসি কিনে গ্রাহক তার মোবাইল ফোনে এসির কলার টিউন সেট করলে এবং ক্রয়কৃত এসি ইনস্টল করার পর ছবি তুলে ফেসবুকে আপলোড করলেই মিলছে ১ হাজার টাকা ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক।

প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মফিজুর রহমান জানান, এ বছর ১ টন, ১.৫ টন ও ২ টনের অসংখ্য মডেলের স্পিট এসি বাজারে ছেড়েছে মার্সেল। এর মধ্যে ২ টনের আইওটি বেজড ইনভার্টার স্মার্ট এসির দাম ৭৬ হাজার ৪’শ টাকা, শুধু ইনভার্টার এসির দাম ৭৪ হাজার ৯’শ টাকা ও আয়োনাইজার প্রযুক্তির এসির দাম ৫৬ হাজার ৯’শ টাকা ধরা হয়েছে।

এদিকে ১.৫ টনের ইনভার্টার স্মার্ট এসি ৬৫ হাজার টাকায়, শুধু ইনভার্টার এসি ৬৩ হাজার ৫’শ টাকা এবং আয়োনাইজার এসি ৪৯ হাজার ৯’শ টাকায় কেনা যাচ্ছে। এছাড়া মার্সেলের ১ টন এসির দাম ৩৫ হাজার ৫’শ টাকা।

কর্তৃপক্ষ জানায়, গ্রাহক পর্যায়ে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে মার্সেলের রয়েছে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এর আওতায় সারা দেশে রয়েছে ৭০টিরও বেশি সার্ভিস সেন্টার। সেখানে নিয়োজিত রয়েছেন আড়াই হাজারের বেশি প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিপিবি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close