ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ আপডেট : ১১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:২৬

প্রিন্ট

ভোট পেছানোর আন্দোলনে ঢাবি ভিসির একাত্মতা

ভোট পেছানোর আন্দোলনে ঢাবি ভিসির একাত্মতা
ঢাবি প্রতিনিধি

সরস্বতী পূজার দিনে রাজধানীর দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করায় তা পেছানোর দাবিতে আমরণ অনশন করে যাচ্ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। গতকাল থেকে চলা এই অনশনে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

অনশনের দ্বিতীয় দিনে আজ বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আখতারুজ্জামান শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে 'অসাম্প্রদায়িক চেতনা'র দিক বিবেচনা করে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছেন।

উপাচার্য বলেছেন, ৩০ তারিখ যে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হলো, এটি কোন ব্যক্তি গোষ্ঠী বা জাতি থেকে আসেনি। এটি বানানো। তাই আমি মনে করি যদি আইন-আদালতের কোন ঝামেলা না থাকে তাহলে অসাম্প্রদায়িক চেতনার দিকটি বিবেচনা করে আর কালবিলম্ব না করে নির্বাচন কমিশনের এই তারিখটি পরিবর্তন করা উচিত।

উপাচার্য আরও বলেন, নির্বাচনের দিন-ক্ষণ ঠিক করার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। তবে নির্বাচনের দিন-ক্ষণ ঠিক করার আগে নির্বাচন কমিশন বিষয়টি নিয়ে ভাবা উচিত ছিলো যে, এই তারিখটি কোন মূল্যবোধ, কোন চেতনার পরিপন্থী হয় কিনা।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে আমরণ অনশন শুরু করেন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চার অনশনকারী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

অসুস্থদের মধ্যে অপূর্ব চক্রবর্তী ও অর্ক সাহা নামে দুই শিক্ষার্থীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। অপর দুই ছাত্রকে স্যালাইন দিয়ে রাখা হয়েছে। তারা হলেন- জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের জিএস কাজল দাস ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক প্রদীপ দাস।

অনশনরত শিক্ষার্থীরা পূজার দিনে নির্বাচনের তারিখ বহাল রাখার প্রতিবাদে বলছেন, 'অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ কি স্যালাইন পানির মধ্যে জীবিত থাকবে?'

প্রসঙ্গত, নির্বাচন পেছানোর দাবিতে গত মঙ্গল ও বুধবার শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন আন্দোলনকারীরা। নির্বাচনের তারিখ না পেছানোয় গত বুধবার নির্বাচন কমিশন ভবন ঘেরাও কর্মসূচি পালন করতে রওনা হয়ে আন্দোলনকারীরা শাহবাগে পুলিশের বাধার মুখোমুখি হন। পরে শাহবাগে মোড় অবরোধ করে তারা বিক্ষোভ দেখান।

তাতেও নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের ঘোষণা না এলে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের ভিপি উৎপল বিশ্বাস ও জিএস কাজল দাসের নেতৃত্বে প্রায় ৪০ জন শিক্ষার্থী আমরণ অনশন শুরু করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত