ঢাকা, রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭ আপডেট : ৪ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৪ মার্চ ২০২১, ১১:১৪

প্রিন্ট

প্রাথমিক স্কুলের ভবনের কাজে অনিয়মের অভিযোগ

প্রাথমিক স্কুলের ভবনের কাজে অনিয়মের অভিযোগ
ছবি- প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পশ্চিম জয়পুর প্রাইমারি স্কুলের নবনির্মিত ভবনের নির্মাণকাজে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সচেতন অভিভাবক ও এলাকাবাসী বলছেন, ছাদ ঢালাইয়ের পর ঝুলে থাকা অংশ না ভেঙে ভরাটের মাধ্যমে দায় এড়ানোর চেষ্টা করছে ঠিকাদার। তবে স্কুল পরিচালনা কমিটিসহ অভিভাবকদের কোনো অভিযোগই আমলে নিচ্ছেন না উপজেলা প্রকৌশলী।

স্কুলটির ২য় তলার ভবন নির্মাণের দায়িত্ব পান ঠিকাদার জুয়েল। ছাদ ঢালাইয়ের পর এক অংশ ধ্বসে পড়লে ভেঙে পড়া অংশ কোনোরকমে মেরামত করে আড়াল করার চেষ্টা করেন তিনি। বিষয়টি জানাজানি হলে ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় লোকজন তাদের কাজ বন্ধ করে দেন। তারা বলেন প্রকৌশলীর পরামর্শ ছাড়া ভবনের ঝুঁকিপূর্ণ অংশ না ভেঙে ভরাট করা ঠিক হবে না।

এ ব্যাপারে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিশ্বজিৎ ভট্রাচার্য্য বলেন, কাজের অনিয়মের বিষয়ে উপজেলা ও জেলা প্রকৌশলীকে অবগত করা হয়েছে। এরপরও তারা পদক্ষেপ নেননি। আর এ সুযোগে ঠিকাদার তার মনগড়াভাবেই কাজ চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। স্কুলের এ কাজে কত টাকা বরাদ্দ এসেছে এ তথ্যও দিতে নারাজ ঠিকাদার জুয়েল।

তবে ৭৩ লাখ টাকা বরাদ্দের কথা জানান স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা খাদিজা আক্তার। তিনি বলেন, ঢালাই করার পরপরই ছাদ ঝুলে পড়ার অবস্থা হওয়ায় উপজেলা প্রকৌশলীকে বিষয়টি অবগত করি। তিনি বিষয়টির সমাধান করবেন বলে জানান।

ছাত্র অভিভাবক আব্দুল হামিদ বলেন, ঠিকাদার শুরু থেকেই অনিয়ম করে চলছেন। তাকে সহযোগিতা করছেন প্রকৌশলী। ঝুঁকিপুর্ণ অংশ না ভেঙে জোড়াতালি দিয়ে দায় এড়ানোর চেষ্টাই অনিয়মের প্রমাণ। তিনি এর কারণ উদঘাটন করে যথাযথভাবে ছাদ নির্মাণের দাবি জানান।

এ বিষয়ে, বাহুবল উপজেলা প্রকৌশলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

প্রসঙ্গত, স্কুলটির ভবন নির্মাণের এ কাজটি শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত