ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০২১, ১৯:১০

প্রিন্ট

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বৈঠক গুজব

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বৈঠক গুজব

আসিফ কাজল

‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা যাবে কি না জানা যাবে শনিবার’ শুক্রবার দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে একটি সংবাদ প্রচার হয়েছে। এতে বলা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করতে ফের বৈঠকে বসছে আন্তঃমন্ত্রণালয়। শনিবার (১৩ মার্চ) তথ্য মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তবে বৈঠকের এ বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব বলে শনিবার সন্ধায় বাংলাদেশ জার্নালকে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জেষ্ঠ জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের।

তিনি বলেন, ‘অনেকেই লিখেছেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কবে খুলবে জানা যাবে শনিবার, এমন কিছু সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। যার কোন ভিত্তি নেই। বিষয়টি একবারেই ভোগাস। সত্যি কথা বলতে আমাদের প্রাত্যাহিক সূচিতে আজ কোনো বৈঠকই নেই।’

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ৩০ মার্চ থেকে দেশের সব স্কুল-কলেজ খোলে দেওয়ার কথা। সম্প্রতি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের হার আবারো ঊর্ধ্বমুখি। বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে উদ্বেগও প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এবিষয়ে এখেনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

এর আগে শুক্রবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সাংবাদিকদের বলেন, এখনও পর্যন্ত মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ৩০ মার্চ খোলার কথা, আর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার কথা ২৪ মে এবং হলগুলো খোলার কথা রয়েছে ১৭ মে থেকে। আমাদের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মচারী ও অভিভাবকসহ সকলের স্বাস্থ্য ঝুঁকি, সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। কাজেই আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মার্চ মাসেই সংক্রমণ হয়েছিল। এরপর বেড়েছিল। এখন একটু মনে হয় ঊর্ধ্বগতি, টিকা এসে যাওয়াতে আমাদের সবার মধ্যে কিছু শৈথিল্যের ভাব দেখা দিয়েছিল। আশা করি, এই যে বাড়ছে তাতে সবাই সচেতন হবেন। সবাই ভালোভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানবেন, তাহলে বাড়বে না। যদি এই ঊর্ধ্বগতিটা অব্যাহত থাকে, তাহলে অবশ্যই পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে এবং জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। পুনর্বিবেচনা করবে তারিখটি ৩০ মার্চই থাকবে, নাকি পরিবর্তন হবে। যদি পরিবর্তন হয়, তাহলে আপনাদের সহযোহিতায় আমরা সময়মতো জানিয়ে দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, করোনা প্রাদুর্ভাবের পর প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। গত ২৭ জানুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি আগামী ৩০ মার্চ থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ঘোষণা দেন। এ ঘোষণার তিনদিন পর থেকেই বাড়তে শুরু করে করোনা সংক্রমণের হার।

বাংলাদেশ জার্নাল/একে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত