ঢাকা, সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬ আপডেট : ৩৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:১৩

প্রিন্ট

প্রাথমিকে ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে নতুন নীতিমালা

প্রাথমিকে ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে নতুন নীতিমালা
ফাইল ছবি
নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচন করতে হলে প্রার্থীকে অবশ্যই অনার্স (স্নাতক) পাশ হতে হবে। একই সাথে প্রার্থীর সন্তানকেও ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র হতে হবে। এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এর আগে প্রাইমারি স্কুলের ব্যবস্থাপনা কমিটিতে সভাপতি হওয়ায় কোনো শিক্ষাগত যোগ্যতার কোনো শর্ত ছিল না। নতুন নীতিমালায় ১১ সদস্যের ব্যবস্থাপনা কমিটির মেয়াদ হবে ৩ বছর। কমিটির সদস্য সচিব থাকবেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

এছাড়া নীতিমালায় তেমন বড় কোনো সংশোধন নেই। কমিটি গঠন পদ্ধতি, অ্যাডহক কমিটি, কমিটির সদস্যদের দায়িত্ব ও কর্তব্য, বিদ্যালয়ের উন্নয়ন পরিকল্পনা, কমিটি বাতিলসহ বিভিন্ন বিষয় নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

চলতি বছরের মে মাসে বেসরকারি হাইস্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসায় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি এবং সদস্য নির্বাচনে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে বিতর্ক হয়। কমিটির একটি অংশ চেয়েছেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকা উচিত। এদিকে অপর অংশ দাবি করেন, যেখানে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে শিক্ষাগত যোগ্যতা লাগে না, সেখানে পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণের প্রয়োজন নেই।

এর প্রেক্ষিতে মাঠ পর্যায়ের বাস্তবতা তুলে ধরে মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা জানান, আগের নীতিমালায় অনেক বিদ্যালয়ে কমিটির সভাপতি হিসেবে নিরক্ষর ব্যক্তিকে নির্বাচন করায় প্রতিষ্ঠান পরিচালনায় নানা প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিচালনা ও শিক্ষার মান বাড়াতে তারা কোনো ধরনের সহায়তা ও দিকনির্দেশনা দিতে পারেন না। অনেক সময় শিক্ষকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারও করেন। সভাপতিরা স্থানীয় ব্যক্তি ও ক্ষমতাবান হওয়ায় নানা ধরনের অনিয়ম করলেও শিক্ষকরা ভয়ে বাধা দিতে পারেন না।

এ ধরণের বিভিন্ন অভিযোগ আসায় যোগ্য ব্যক্তিদের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সভাপতি নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়। এরপরই সভাপতির ন্যূনতম যোগ্যতা স্নাতক পাসের শর্ত রেখে প্রজ্ঞাপন জারি করা হলো।

অ্যাডহক কমিটি: নতুন নীতিমালায় বলা হয়েছে, কোনো বিদ্যালয়ে যুক্তিসঙ্গত কারণে ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করা না গেলে সর্বোচ্চ ৬ মাসের জন্য অ্যাডহক (অনানুষ্ঠানিক) কমিটি গঠন করা যেতে পারে। ছয় মাসের মধ্যে নিয়মিত কমিটি গঠন করতে হবে। সভাপতি হবেন সংশ্লিষ্ট ক্লাস্টারের সহকারী উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসার। ৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটির সদস্য সচিব থাকবেন প্রধান শিক্ষক।

বাংলাদেশ জার্নাল/কেআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত