ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ০৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:০৬

প্রিন্ট

কানেকটিকাট প্রবাসীদের মাঝে ম্যানচেস্টারের সিটি মেয়র

কানেকটিকাট প্রবাসীদের মাঝে ম্যানচেস্টারের সিটি মেয়র
নিউইয়র্ক প্রতিনিধি

যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট অঙ্গরাজ্যের ম্যানচেস্টারে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন সিটি মেয়র জে মোরান।

রোববার দুপুরে নির্বাচনী প্রচারণায় কয়েকশ’প্রবাসীর সঙ্গে মিলিত হয়ে মেয়র জে মোরান আগামী নভেম্বরে পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে বাংলাদেশিদের সহযোগিতা কামনা করেছেন। এ খবর দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রস্থ বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ও কানেকটিকাট ডেমোক্রেটিক পার্টির এশিয়ান আমেরিকান এবং প্যাসিফিক আইল্যান্ড (এএপিআই)-এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান অপু’র আয়োজন ও তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত উক্ত নির্বাচনী প্রচারণা অনুষ্ঠানে মেয়র জে মোরান বলেন, গত এক দশকে ম্যানচেস্টারে বাংলাদেশিদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে কয়েক গুণ। এ শহরে বসবাসকারী প্রবাসীরা অত্যন্ত শান্তিপ্রিয়। আগামী নির্বাচনে পরিচালনা পর্ষদ (বোর্ড অব ডাইরেক্টর)এর প্রার্থী হিসেবে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান। আর এজন্য প্রবাসী বাংলাদেশি আমেরিকান ভোটারদের কাছে তিনি ভোট প্রত্যাশী।

নির্বাচিত হলে প্রবাসীদের সকল প্রকার সাহায্য সহযোগিতা করবেন বলেও আশ্বাস দেন মেয়র জে মোরান।

মেয়র জে মোরান ২০১৪ সাল থেকে ম্যানচেস্টারের মেয়র এবং এর আগে দু’বারেরও বেশি ডেপুটি মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি প্রথম ২০০৯ সালে পরিচালনা পর্ষদে নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং এর আগে দু’বছর শিক্ষাবোর্ডে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জে মোরান প্রায় ৩০ বছর ধরে কলেজের অ্যাথলেটিক প্রশাসক হিসাবে কাজ করেছেন। তিনি বর্তমানে সাউদার্ন সিটি স্টেট ইউনিভার্সিটির অ্যাথলেটিক ডিরেক্টর। তিনি এর আগে ব্রিজপোর্ট ইউনিভার্সিটি এবং আলবার্তার ম্যাগনাস কলেজ এডি পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। তিনি সেন্ট জোসেফ কলেজের সহকারী অ্যাথলেটিক পরিচালক এবং ক্রস কান্ট্রি কোচও ছিলেন। তিনি ইউকন-এ ইন্টার্রামালাল এবং বিনোদনমূলক সমন্বয়কারীও ছিলেন।

তিনি আজীবন ম্যানচেস্টারের বাসিন্দা। প্যাটি গ্রোন্ডা মোরানের সাথে ৩০ বছর আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ক্রিস্টেন, এলিজাবেথ, জেমি এবং জুলিয়া মোরানের গর্বিত বাবা-মা তারা।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন কংগ্রেসম্যান জন লারসন, ষ্টেট সিনেটর সৌদ আনোয়ার, এটর্নি জেনারেল উইলিয়াম টং, ডিএনসি নেতা ন্যান্সি ডিনার্ডো, ম্যানচেস্টার সিটি মেয়র জে মোরান ও সেন্ট্রাল কানেকটিকাট চেম্বার অ্যান্ড কমার্স-এর বোর্ড অব ডাইরেক্টর মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান অপু।

এছাড়া কানেকটিকাটের ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতৃবৃন্দসহ উচ্চপদস্থ মার্কিন কর্মকর্তারাও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত