ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ আপডেট : ২১ মিনিট আগে

‘আমি নিশ্চিত, ছবিটা দেখার পর সব মেয়েরা সিয়ামের ওপর ক্রাশ খাবে’

  ইমরুল নূর

প্রকাশ : ১৩ মে ২০২২, ২০:৩২

‘আমি নিশ্চিত, ছবিটা দেখার পর সব মেয়েরা সিয়ামের ওপর ক্রাশ খাবে’
ইমরুল নূর

সিনেমা মুক্তির দশম দিনেও ‘শান’দেখতে সিনেমাহলে ভিড় করছেন দর্শকরা। ঈদে দেশের ৩৪ হলে মুক্তি পেয়েছে সিয়াম-পূজা জুটির এ সিনেমাটি, কিন্ত প্রথম সপ্তাহের পরই দর্শক আগ্রহে বাড়ছে শো এবং হল সংখ্যা, যা এখন একযোগে চলছে দেশের ৪০ হলে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার সিনেমাসে আয়োজন করা হয় সিনেমাটির এক বিশেষ প্রদর্শনীর অর্থাৎ গেট টুগেদার শো।

এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সাবেক মহাসচিব বদিউজ্জামান খোকন, মুশফিকুর রহমান গুলজার, মালেক আফসারি, অপূর্ব রানা, অভিনেতা তারিক আনাম খান, চিত্রনায়ক রিয়াজ, আরেফিন শুভ, এবিএম সুমন, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, রোজিনা, অভিনেত্রী শান্তা ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়াও সিয়ামকে উৎসাহ দিতে উপস্থিত হয়েছিলেন তার কাছের বন্ধু সৈয়দ জামান শাওন, মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া, সাফা কবির, সুনেহরা বিনতে কামাল এবং সিয়ামের স্ত্রী শাম্মা রুশাফী অবন্তী।

সিনেমা দেখা শেষে হল থেকে বের হওয়ার সময় সবাই সিয়াম সিয়াম বলে চিৎকার করতে থাকেন আর শিস বাজাতে থাকেন। করতালিতে মুখরিত হয়ে উঠে চারপাশ। এদের মধ্যে ছিলেন শাওন, টয়া, সাফারাও।

সৈয়দ জামান শাওন বলেন, বাংলাদেশে এত বড় ক্যানভাসে এবং এত সুন্দর আয়োজনে অ্যাকশন সিনেমা এর আগে দেখিনি। ছবি দেখে চোখের পলক ফেলার উপায় ছিলো না। এত সুন্দর সিনেমাটোগ্রাফি এবং চোখ জুড়ানো দৃশ্য ছিলো এতে। ছবির পরিচালক একটা বড় ধন্যবাদ প্রাপ্য এত চমৎকার করে এত সুন্দর একটি ছবি নির্মাণের জন্য। আর সিয়াম তো জাস্ট ফাটিয়ে দিয়েছে। ওর অভিনয় মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে দেখার মত ছিলো। আমি সবাইকে বলবো, হলে এসে ছবিটি দেখার জন্য, নাহলে হয়তো অনেক কিছু মিস করবেন।

মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া বলেন, ‘শান’দেখার পর আমার জাস্ট একটা কথাই মনে হলো যে, বাংলাদেশের সিনেমা আসলেই এখন অনেক ভালো হচ্ছে। এত চমৎকার আয়োজনে এত সুন্দর একটা ছবি দেখে সত্যি মন ভরে গিয়েছে। হিউম্যান ট্রাফিক নিয়ে আমাদের এখানে এরকম ছবি দেখিনি। খুবই সুন্দর একটা গল্প নিয়ে ছবিটি নির্মাণ করা হয়েছে, এখানে সমাজের জন্য একটা দারুণ ম্যাসেজ রয়েছে। পুরো ছবিটাই যেন একটা ফুল প্যাকেজ ছিলো। সিয়াম তার চরিত্র খুবই চমৎকারভাবে ফুটিয়ে তুলেছে। আমার মনে হয়েছে, এ ছবি দেখার পর সবাই তাকে অন্যরকমভাবেই গ্রহণ করবে। এরকম সুন্দর গল্প এবং এত সুন্দর পারফরম্যান্স ছিলো এখানে, যা সবার দেখা উচিত।

সাফা কবির বলেন, সত্যি বলতে আমাদের দেশের সিনেমা এখন এত ভালো হচ্ছে যা আসলেই আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের। আমি বলবো, এই সিনেমাটি বাংলাদেশের সিনেমার জন্য নতুন একটা রেভ্যুলেশন ঘটাতে পারে। আমাদের দেশের অ্যাকশন সিনেমাগুলো খুবই গতানুগতিক হয় হয় কিন্ত এ ধরণের অ্যাকশন ধাঁচের সিনেমা বাংলাদেশে এর আগে কখনও দেখিনি।

একজন অ্যাকশন হিরো হিসেবে সিয়ামকে এখানে খুবই চমৎকার লেগেছে। আমি নিশ্চিত, এই ছবি দেখার পর বেশিরভাগ মেয়ে এখন সিয়ামের ওপর ক্রাশ খাবে।

এত চমৎকার গল্প এবং সুন্দর সুন্দর সেট ফেলে চমৎকারভাবে সেটাকে উপস্থাপন করার জন্য জন্য ছবির পরিচালক এম রাহিম ভাইয়া অবশ্যই প্রশংসা প্রাপ্য। ছবির দৃশ্যায়নগুলো ছিলো জাস্ট গুজবাম্প হওয়ার মতো।

আমি পুরো ছবিটি মুগ্ধ হয়ে দেখছিলাম, একটুর জন্যও চোখের পলক ফেলতে পারিনি। আমি শুধু দেখছিলাম এরপরে কি হতে যাচ্ছে! আমার যেহেতু ছবিটি এত ভালো লেগেছে তাই আমার বিশ্বাস এ প্রজন্মের তরুণ-তরুণী সবার কাছে ছবিটি অনেক ভালো লাগবে। একটা নতুন ধরণের ছবি বাংলাদেশের দর্শকরা দেখতে পাবে। সবার আসলে ‘শান’ সিনেমাটি দেখা উচিত।

আর সিয়ামের কথা যদি তাহলে বলবো, ছবিটি দেখা শেষে আমি নিজে করতালি দিতে দিতে বের হয়েছি। সিয়াম এত বেশি ডেডিকেটেড একজন শিল্পী যার ডেডিকেশন, প্যাশন, এফোর্ট আমি ছবিটির প্রতিটা ফ্রেমে দেখতে পেয়েছি। ছবিটির জন্য ও (সিয়াম) কতটা পরিশ্রম করেছে সেটা ছবিতে খুব সুন্দরভাবে দেখা গিয়েছে, আমি দেখতে পেয়েছি। আমি সিয়ামকে একদম নতুনভাবে দেখতে পেয়েছি। কারণ, তাকে এর আগে রোমান্টিক চরিত্রে দেখেছি কিন্তু অ্যাকশন হিরো হিসেবে এই প্রথম দেখলাম আর সে এত সুন্দরভাবে সেটা ক্যারি করেছে যা মুগ্ধ হয়ে দেখার মতো। খুবই চমৎকার করেছে।

আজাদ খানের গল্প এবং নাজিমুদ্দৌলার চিত্রনাট্যে ছবিটি পরিচালনা করেছেন এম রাহিম। সিয়াম-পূজা ছাড়াও এতে আরও অভিনয় করেছেন চম্পা, অরুনা বিশ্বাস, মিশা সওদাগর, নাদের চৌধুরী, তাসকিন, মুরাদ পারভেজ, নয়ন প্রমুখ।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত