ঢাকা, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৪

প্রিন্ট

৮ ডিসেম্বর প্রদান করা হবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

৮ ডিসেম্বর প্রদান করা হবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
বিনোদন প্রতিবেদক

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের একমাত্র রাষ্ট্রীয় ও সর্বোচ্চ চলচ্চিত্র পুরস্কার হচ্ছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ১৯৭৫ সাল থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে এই পুরস্কারটি প্রদান করা হচ্ছে। প্রথমদিকে আজীবন সম্মাননা পুরস্কার না থাকলেও ২০০৯ সালে প্রথম এই পুরস্কার চালু করা হয়।

গেল বছরের মাঝামাঝি সময়ে অর্থাৎ জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত হয় সর্বশেষ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ৪১তম আসর। যেখানে ২০১৬ সালের চলচ্চিত্রের জন্য পুরস্কার প্রদান করা হয়। এরপর সব অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ৭ নভেম্বর ঘোষণা করা হয় রাষ্ট্রীয় এই পুরস্কারের ৪২তম আসরের তালিকা। এই বছরেই ২০১৭ ও ২০১৮ এই দুই সালের পুরস্কার একসঙ্গে দেওয়া হবে।

রাষ্ট্রীয়ভাবে চলচ্চিত্রাঙ্গনের জন্য এটিই সর্বোচ্চ পুরস্কার। এ কারণে অভিনয়শিল্পী থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্টরা মুখিয়ে থাকেন এই পুরস্কারের জন্য।

এবার ঘোষণা এলো পুরস্কার প্রদানের তারিখের। আগামী ৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করবেন। গমাধ্যমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। এবার গত দুই বছরের ২৮টি শাখায় ৬৪ জনকে পুরস্কৃত করা হবে।

২০১৭ সালে আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন এটিএম শামসুজ্জামান ও সালমা বেগম সুজাতা। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’। ‘গহীনে বালুচর’ সিনেমার জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কারের মনোনীত হয়েছেন বদরুল আনাম সৌদ। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে পুরস্কার পাচ্ছেন শাকিব খান ও আরিফিন শুভ। তারা দু’জন পুরস্কার পাচ্ছেন যথাক্রমে ‘সত্তা’ ও ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমার জন্য। ‘হালদা’ সিনেমায় অনবদ্য অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় পুরস্কারের জন্য মনোনিত হয়েছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। একই ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা খলনায়কের পুরস্কার যাচ্ছে জাহিদ হাসানের ঘরে।

সেরা নায়ক ছাড়াও ‘সত্তা’ সিনেমা চার ক্যাটাগরিতে পেয়েছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। সেরা গায়ক জেমস, গায়িকা মমতাজ বেগম, সেরা গীতিকার সেজুল হোসেন এবং সেরা গীতিকার হিসেবে পুরস্কার পাচ্ছেন বাপ্পা মজুমদার।

হালদা ছবির জন্য সেরা কাহিনীকার আজাদ বুলবুল ও সেরা চিত্রনাট্যকার হিসেবে তৌকির আহমেদ জাতীয় পুরস্কার পেতে চলেছেন।

এদিকে ২০১৮ সালে যৌথভাবে আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন আলমগীর ও প্রবীর মিত্র। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে ‘পুত্র’। ‘জান্নাত’ সিনেমার জন্য সেরা পরিচালকের পুরস্কারের মনোনিত হয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে পুরস্কার পাচ্ছেন ফেরদৌস আহমেদ ও সায়মন সাদিক। তারা পুরষ্কার পাচ্ছেন ‘পুত্র’ ও ‘জান্নাত’ ছবির জন্য। ‘দেবী’র জন্য সেরা অভিনেত্রী জয়া আহসান মনোনিত হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য।

বাংলাদেশ জার্নাল/ আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত