ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১০:৪৫

প্রিন্ট

রাত থেকে কমছে ইন্টারনেটের গতি

রাত থেকে কমছে ইন্টারনেটের গতি
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারতের একটি সাবমেরিন ক্যাবলের পরিবর্তন ও রক্ষণাবেক্ষণের কাজ শুরু হওয়ায় আজ বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে দেশের কিছু অংশে ইন্টারনেটের গতি কম থাকবে। ভারতীয় এয়ারটেল লিমিটেডের গ্লোবাল সার্ভিসেস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার গতকাল বাংলাদেশে তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠানকে ই-মেইলে এ কথা জানিয়েছে।

ই-মেইলে বলা হয়, আইটুআই সাবমেরিন ক্যাবলের পরিবর্তন ও রক্ষণাবেক্ষণের কাজ শুরু হওয়ায় ইন্টারনেট সেবায় এই বিঘ্ন ঘটবে। এ কার্যক্রম ৩০ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ২ নভেম্বর পর্যন্ত চলতে পারে। যার ফলে টানা চার দিন এ সমস্যা চলতে পারে।

তারা আরো বলেছে, ক্যাবল পরিবর্তনের অগ্রগতি ও আবহাওয়ার অবস্থার উপর নির্ভর করে পরিকল্পিত শিডিউল পরিবর্তনও হতে পারে।

এর আগে ২৬ অক্টোবর জানানো হয়েছিল, ২৭ অক্টোবর থেকে এই কাজ শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মসিউর রহমান বলেন, আমাদের দুটি সাবমেরিন ক্যাবলে কোনো সমস্যা নেই। সমস্যা হতে পারে যেসব ইন্টারন্যাশনাল টেরেস্ট্রিয়াল কেবল (আইটিসি) অপারেটর ভারত থেকে ব্যান্ডউইথ আনছে তাদের দিক থেকে।

তিনি আরো বলেন, দেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের চাহিদা দুই হাজার জিবিপিএস (গিগাবাইট পার সেকেন্ড)। এর মধ্যে আমাদের কাছ থেকে নেয়া হয় এক হাজার ২৭৫ জিবিপিএস। বাকিটা আসে আইটিসি অপারেটরদের মাধ্যমে ভারত থেকে।

এই খাতের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চেন্নাইয়ের সঙ্গে সিঙ্গাপুরের সংযোগকারী সাবমেরিন ক্যাবলের রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য কিছু এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা চার দিন ধীরগতির সেবা পেতে পারে।

ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে বা আইআইজি এবং ইন্টারন্যাশনাল টেরেস্ট্রিয়াল ক্যাবল (আইটিসি) অপারেটর ফাইবার অ্যাট হোম গ্লোবাল লিমিটেডের বাণিজ্য বিভাগের প্রধান মসিউর রহমান বলেন, ‘দেশের আইটিসি অপারেটররা ভারতের চেন্নাই এবং মুম্বাই থেকে তাদের সাবমেরিন কেবলের ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ সরবরাহ নিয়ে থাকে। বেনাপোল সীমান্ত হয়ে এই ব্যান্ডউইথ দেশে আসে। যেসব আইটিসি চেন্নাই থেকে ‘আইটুআই’ সাবমেরিন ক্যাবলের ব্যান্ডউইথ নিয়ে থাকে, তাদের জন্য সমস্যা হতে পারে। কারণ ‘আইটুআই’ সাবমেরিন কেবলের চেন্নাই থেকে সিঙ্গাপুর রুটের লিঙ্কের মেরামত কাজ চলবে আগামী ৩০ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত।’

‘যদিও বাংলাদেশের দুটি সাবমেরিন ক্যাবলে কোনো সমস্যা নেই, তারপরও দেশের গ্রাহকরা এই চার দিন ইন্টারনেটের গতি নিয়ে কিছুটা সমস্যায় পড়তে পারেন। কারণ, আইটিসি অপারেটররা চেন্নাই থেকে ভাগাভাগি করে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ নিয়ে থাকে’ যোগ করেন তিনি।

ইন্টারনেটের গতি কমানোর সরকারি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার

ইন্টারনেটের ধীরগতি থাকবে ৫ দিন

মোবাইল ফোনের নেশা ছাড়বেন যেভাবে

জেনে নিন ওয়াইফাই এর ক্ষতিকর দিক​

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত