ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৭ মে ২০২০, ১১:১৫

প্রিন্ট

বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ ৪৭ লাখ ছাড়িয়েছে

বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ ৪৭ লাখ ছাড়িয়েছে
রাশিয়ায় করোনা সংক্রমণের সংখ্যা কিছু কমেছে

Evaly

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। শনিবার গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের আরও প্রায় এক লাখ মানুষ। ফলে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা রাতারাতি ৪৭ লাখ ছাড়িয়েছে। এতে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ৩ লাখের বেশি মানুষ। বিশ্বে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুতে এখনও শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিশ্বে করোনা সংক্রমণ ৪৭ লাখ ছাড়িয়েছে

ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাস পজিটিভ আসা মানুষের সংখ্যা এই মুহূর্তে ৪৭ লাখ ২১ হাজার ৮৪৮ জন। এতে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছে ৩ লাখ ১৩ হাজার ২৬০ জন। সুস্থ হয়েছে ১৮ লাখের বেশি মানুষ। অর্থাৎ ১৮ লাখ ১২ হাজার ১৬৭ জন। এখনও বিভিন্ন দেশের হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে চিকিৎসাধীন রয়েছে আরও প্রায় ২৬ লাখ মানুষ। অর্থাৎ ২৫ লাখ ৯৬ হাজার ৪২৫ জন। এদের মধ্যে ৪৪ হাজারের বেশি রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজন।

গত ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ভাইরাসকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে গত ডিসেম্বরে চীনের উহানে একজনের শরীরে প্রথম ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এরপরই এই ভাইরাস চীনের সীমান্ ছাড়িয়ে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। এ পর্যন্ত বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলের মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র

করোনা মহামারিতে সবচেয়ে বিপর্যস্ত দেশ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল শনিবারও সেখানে আরও ২৩ হাজার ৪৮৮ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে আরও ১২শ’র বেশি মানুষ। আক্রান্ত ও মৃত্যুর এই সংখ্যা আগের দিন অর্থা শুক্রবারের চেয়ে বেশ কম।

শুক্রবার সেখানে আরও ২৬ হাজার ৬৯২ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল এবং মারা যায় আরও ১৫শ’র বেশি মানুষ।

দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে মোট ১৫ লাখ ৭ হাজার ৭৭৩ জন। আর মারা গেছে মোট ৯০ হাজারের বেশি মানুষ। সেখানে এ পর্যন্ত সেরে উঠেছে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২৩২ জন। এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছে আরও প্রায় ১১ লাখ মানুষ। এদের মধ্যে ১৬ হাজারের বেশি মানুষের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তবে যুক্তরাষ্ট্রে গত কয়েকদিন ধরে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা বেশ কমেছে। চলতি মাসের শুরুতেও সেখানে প্রতিদিন ৩০-৩৫ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হতো। বর্তমানে তা ২৫-২৬ হাজারে নেমে এসেছে। এ অবস্থায় দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে।

ইতালিকে হটিয়ে তালিকার সেরা পাঁচে ব্রাজিল

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনা আক্রান্তে সেরা পাঁচে থাকা ৩টি দেশই হচ্ছে ইউরোপের; যথা-স্পেন, রাশিয়া ও যুক্তরাজ্য। শনিবার ইতালিকে সরিয়ে তালিকার পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত হয়েছে স্পেনের মানুষ। সেখানে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ৫০৫ জন। আর মারা গেছে মোট ২৭ হাজার ৫৬৩ জন।

রাশিয়ায় প্রতিদিনই ১০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে। ফলে করোনা তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে দেশটি। যদিও সরকারি কর্মকর্তারা দাবি করছেন, তারা গণহারে পরীক্ষা করায় সংক্রমণের ঘটনা বেশি।

তবে শনিবার সেখানে ১০ হাজারের কম আক্রান্ত হয়েছে, ৯ হাজার ২শ জন। এ পর্যন্ত সেখানে মোট ২ লাখ ৭২ হাজার ৪৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে আরও ২ হাজার ৫৩৭ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু যুক্তরাজ্যে। এ পর্যন্ত সেখানে মোট ৩৪ হাজার ৪৬৬ জন মারা গেছে। আর আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৪০ হাজার ১৬১ জন।

এদিকে করোনা তালিকার পঞ্চম স্থানে থাকা ইতালিতে হটিয়ে দিয়ে ওই জায়গা দখলে নিয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে শনিবার প্রায় ১৫ হাজার মানুষ নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে। ফলে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৩৩ হাজার ৫১১ এবং মৃত্যু ১৫ হাজার ৬৬২ জন।

এরপরে তালিকায় পর্যায়ক্রমে ১০য়ে থাকা দেশগুলো হচ্ছে-ইতালি (আক্রান্ত ২ লাখ ২৪ হাজার ৭৬০; মৃত্যু ৩১ হাজার ৭৬৩), ফ্রান্স( মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৬৫; মৃত্যু ২৭ হাজার ৬২৫), জার্মানি (আক্রান্ত ১ লাখ ৭৬ হাজার ২৪৪; মৃত্যু ৮ হাজার ২৭), তুরস্ক (আক্রান্ত ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬৭; মৃত্যু ৪ হাজার ৯৬) ও ইরান (আক্রান্ত ১ লাখ ১৮ হাজার ৩৯২; মৃত্যু ৬ হাজার ৯৩৭)।

সূত্র: ওয়ার্ল্ডোমিটার

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত