ঢাকা, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ১৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর ২০২০, ১৭:২২

প্রিন্ট

শিক্ষক হত্যায় ‘মুসলিম বিদ্বেষের’ ভয় বাড়ছে ফ্রান্সে

শিক্ষক হত্যায় ‘মুসলিম বিদ্বেষের’ ভয় বাড়ছে ফ্রান্সে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ফান্সের একজন শিক্ষক হত্যার পর দেশটিতে মুসলিমদের ওপর দমন-পীড়ন বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ১৮ বছরের এক শিক্ষার্থী এ হত্যায় জড়িত থাকায় এরই মধ্যে বিভিন্ন মুসলিম সংঘঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে দেশটির ধর্মনিরপেক্ষ সরকার। খবর আলজাজিরার।

শুক্রবারই পুলিশের গুলিতে প্রধান সন্দেহভাজন আব্দুলাখ এ নামে ১৮ বছরের এক তরুণ পুলিশের গুলিতে মারা যায়। চেচেন বংশোদ্ভূত মুসলিম এই তরুণের বাবাসহ আরো ১৪ জনকে আটক করা হয়েছে। মহানবীর ব্যঙ্গ কার্টুন ছাপাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

পুলিশের ভাষ্যমতে, সন্দেহভাজন ঐ হত্যাকারী মুসলিম তরুণ ৬০ মাইল দূরের এক শহর থেকে এসে ঐ শিক্ষককে খুঁজে বের করে ছুরি দিয়ে হত্যার পর তার শিরশ্ছেদ করে। প্যারিসের কাছে শুক্রবার দিনে-দুপুরে এক স্কুল শিক্ষকের এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড নিয়ে ফ্রান্সে গত কয়েকদিন ধরে যে ক্ষোভ এবং আবেগের যে বিস্ফোরণ দেখা যাচ্ছে, তার নজির সেদেশে বিরল।

অনেক শিক্ষকই বেশ কিছুদিন ধরে বলছেন, ক্ষুদ্র হলেও স্কুলে শিক্ষার্থীদের একটি অংশের ভেতর ফরাসী আইন এবং মূল্যবোধ নিয়ে আপত্তি-ক্ষোভ জোরালো হচ্ছে। শুক্রবারের হত্যাকাণ্ডের পর বিরোধী একজন সিনিয়র রাজনীতিক কট্টর ইসলাম মোকাবেলায় সরকারের কৌশলের কঠোর সমালোচনা করে বলেন ‘চোখের পানি নয়, এখন দরকার অস্ত্র।’

এরই মধ্যে মুসলিমদের কয়েকটি মসজিদে হামলার ঘটনা ঘটেছে। বেশ কয়েকটি স্থানে হামলার আশঙ্কায় পুলিশ মেতায়েন করা হয়েছে। এমন অবস্থায় ইউরোপের সবচেয়ে বড় সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। তাছাড়া মুসলিমরা বিভিন্ন স্থানে লক্ষবস্তুতে পরিণত হচ্ছে বলেও মনে করছেন দেশটির মুসলিম নেতারা।

দেশটির ৫০টির বেশি মুসলিম সংঘঠনকে টার্গেট করা হয়েছে। বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। সামনের সময়ে এ ধরণের অভিযান আরো বাড়বে এবং অনেকে হেনস্থার শিকার হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/নকি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত