ঢাকা, বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৩ মাঘ ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১৯

প্রিন্ট

যে কারণে একইসঙ্গে দুই বিসিএস

যে কারণে একইসঙ্গে দুই বিসিএস
বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি), ছবি- প্রতীকী

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে প্রথমবারের মতো একইসঙ্গে দুটি বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। সোমবার রাতে সংস্থাটির ওয়েবসাইটে এ দুই বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

হঠাৎ একইসঙ্গে দুই বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি! এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের কাছে কারণও ব্যাখ্যা করেছে পিএসসি। সংস্থাটি থেকে জানানো হয়েছে, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি এবং প্রার্থীদের বয়স বিবেচনায় এই দুই বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি একসঙ্গে প্রকাশ করা হয়েছে।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক পিএসসির এক সদস্য বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে অনেক দিন সরকারি নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ ছিল। অনেক প্রার্থীর বয়স শেষ হওয়ার পথে রয়েছে। তাদের আবেদন করার সুযোগ তৈরিতে কমিশন একসঙ্গে দুটি বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

তিনি আরো জানান, প্রথমে চিকিৎসকদের জন্য ৪২তম বিশেষ বিসিএসের আবেদন কার্যক্রম শুরু হবে। সেটি শেষ হলে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের জন্য ৪৩তম বিসিএসের আবেদন কার্যক্রম শুরু করা হবে। একই সময়ের মধ্যে আগে-পরে দুটি বিসিএসের প্রিলিমিনারি, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার আয়োজন করা হবে।

এদিকে ৪২তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৭ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে অনলাইন আবেদন শুরু হবে। চলবে ২৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। প্রার্থীরা পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আবেদনের ফি জমা দিতে পারবেন।

এ বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে দুই হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে। এই বিসিএসের বয়সসীমা ২১ থেকে ৩২ বছর।

আরো পড়ুন- ৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

অন্যদিকে ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে এক হাজার ৮১৪ জন কর্মকর্তা নেয়া হবে।

এর মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারে ৩০০ জন, পুলিশ ক্যাডারে ১০০ জন, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২৫ জন, শিক্ষা ক্যাডারের জন্য ৮৪৩ জন, অডিটে ৩৫ জন, তথ্যে ২২ জন, ট্যাক্সে ১৯ জন, কাস্টমসে ১৪ জন ও সমবায়ে ১৯ জন নিয়োগ দেয়া হবে।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে ৪৩তম বিসিএসের অনলাইন আবেদন শুরু হবে। আবেদনের শেষ তারিখ ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৬টা।

এর আগে ৩৯তম বিসিএসে (বিশেষ) ২০০ নম্বরের এমসিকিউ এবং ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নিয়ে পাঁচ হাজারের মতো চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হয়েছিল।

৪২ তম বি.সি.এস.(বিশেষ) পরীক্ষা-২০২০ বিজ্ঞপ্তি দেখতে ক্লিক করুন

৪৩ তম বি.সি.এস. পরীক্ষা-২০২০ বিজ্ঞপ্তি দেখতে ক্লিক করুন

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত