ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ০০:২৪

প্রিন্ট

জন্মদিনে দুইবার করে শুভেচ্ছা পাই: আফি

জন্মদিনে দুইবার করে শুভেচ্ছা পাই: আফি
নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বপ্নকে পুঁজি করেই মানুষ এগিয়ে যায় তার লক্ষ্যকে ছুঁতে। শৈশব থেকেই বেশ ফ্যাশন সচেতন। শৈশবের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়েই মনের মধ্যে স্বপ্ন লালন করেছিলেন বড় হয়ে ফ্যাশন ডিজাইনার হবার, হয়েছেনও। বলছি তরুণ ফ্যাশন ডিজাইনার সুমনা শারমিন আফি'র কথা।

নিজের ডিজাইন করা পোশাক নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রথমদিকে শুরু করেছিলেন অনলাইন ব্যবসা, পরে প্রতিষ্ঠা করেন নিজের ফ্যাশন হাউজ 'ডেইজি ডু'। সেখানে আফির নিজের ডিজাইন করা পোশাকের পাশাপাশি রয়েছে আধুনিক ও নিত্য নতুন বাহারী পোশাক। সেগুলো বিক্রি করেন দেশ ও দেশের বাইরে।

আজ মঙ্গলবার এই তরুণীর জন্মদিন। জন্মদিনের প্রথম প্রহর থেকেই সবার শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছেন তিনি। নিজের জন্মদিনে প্রথম কেকটা তিনি কাটেন শহরের সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের সঙ্গে। এবারও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না।

জন্মদিনের পরিকল্পনা জানিয়ে আফি বলেন, আমি প্রতিবারই চেষ্টা করি পথশিশুদের সঙ্গে জন্মদিনের প্রথম কেকটা কাটার। তাদের সঙ্গে কিছুটা সময় কাটানোর। এরপর বন্ধুদের সঙ্গে ও পরিবারের সঙ্গে দিনটি উদযাপন করি। আজকেও তাই, দুপুরে পথশিশুদের সঙ্গে কিছুক্ষণ সময় কাটাবো এরপর সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে একটা গেট টুগেদার আয়োজন করবো।

জন্মদিন নিয়ে মজার অভিজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, সার্টিফিকেট এবং পাসপোর্টে আমার জন্মতারিখ দেওয়া ২৭ জানুয়ারি, কিন্তু আমার পরিবার সেটা উদযাপন করে ২৮ তারিখে। যারা কাছের মানুষ তারা সেটা জানেন এবং বলতে গেলে দু'দিনই আমাকে শুভেচ্ছা জানান। এটা আমি বেশ উপভোগ করি।

আমি আমার বাবাকে তারিখ নিয়ে প্রশ্ন করলে বাবা জানান, আমি ২৭ ও ২৮ এর মাঝামাঝি সময়ে জন্মেছিলাম। এজন্য এরকমটা করেন।

স্বপ্নকে পুঁজি করে আফি ২০১৪ সালে 'ডেইজি ডু' নামে অনলাইন ফ্যাশন হাউজ চালু করেন। এরপর সেটা থেকে সাড়া পেলে ২০১৭ সালে একই নামে রাজধানীর মিরপুরে প্রতিষ্ঠা করেন নিজের ফ্যাশন হাউজ আউটলেট। এরপর সেটার খুলেন বগুড়াতে। খুব শিগগিরই ঢাকার মধ্যে আরও একটি আউটলেট খুলবেন বলে জানান তিনি।

কয়েকবছর আগে 'ভোরের আলো' নামে এক অনুষ্ঠানে আড়ং,জারাসহ অংশ নেওয়া পঞ্চাশটি ফ্যাশন হাউজের মধ্যে ছিল আফির 'ডেইজি ডু'ও। সেখানে স্পন্সর হিসেবে ছিলো এটি। আফির ডিজাইন করা পোশাক শুধু দেশেই নয়,দেশের বাইরেও যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের পর এখন যুক্তরাজ্যেও পাওয়া যাবে এই হাউজের পোশাক।

আফি বলেন, স্বপ্ন একটাই আমার এই ফ্যাশন হাউজটিকে প্রতিষ্ঠিত করার যেন সবাই এক নামে চেনে। নিজের পরিশ্রম তখনই স্বার্থক হবে যখন কেউ ডিজাইন দেখে বলবে এটা ডেইজি ডু'র পোশাক।

প্রসঙ্গত, আফি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ শেষ করেছেন। এরপর বিজিএমএ থেকে ফ্যাশন ডিজাইনের উপর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা নিয়েছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত