ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৭ মে ২০২০, ১২:৫৮

প্রিন্ট

পারুল, তোমাকে বলছি

পারুল, তোমাকে বলছি
জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না
জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না

আমাদের গ্রামে একটা প্রবাদ আছে কিছু কিছু সময় ‘বেড়ায়ও ক্ষেত খায়’- এ প্রবাদটি অতীব প্রচলিত থাকলেও স্বাভাবিকভাবে গায়ে মাখিনি কখনও। আর যেদিন আমার জীবনে প্রবাদটি কঠিন সত্য হয়ে এসেছে সেদিন বুঝেছি এর অর্থ কতটা কঠিন, কতোটা নির্মম।

হ‍্যাঁ পারুল, তোমাকেই বলছি। তোমার বাস্তবতাকে আমি যেভাবে অনুভব করতে পারি জানিনা আর কেউ এভাবে কতটুকু পারবে। তুমি হয়ত ভাবছো আমরা যারা আজ তোমার আস্টেপিষ্টে রয়েছি তারাই হয়ত তোমার যুদ্ধের হাতিয়ার। প্রেরণার উৎসশক্তি। বিশ্বাস কর আর না কর তবু তোমাকে কিছু সত‍্যি কথা বলবো। মানা না মানা তোমার ব‍্যাপার। হ্যাঁ, আমরা তোমায় ভালোবাসি। তোমার কষ্টে সত‍্যি আমরা খুবই ব‍্যাথিত। কিন্তু এখন তুমি যে কষ্টটা পাচ্ছো এটা সারাজীবন কষ্টের চেয়ে খুবই নগন‍্য। তোমার সৌভাগ্য যে, খুব স্বল্প সময়ে মহান আল্লাহ্ তোমায় হেফাজত করেছেন। ভ্রূণ হত‍্যাকারী হয়ত তখনও বুঝতে পারেনি। নিজের অজান্তেই তোমার সারাটি জীবন বাঁচিয়ে দিয়েছেন। নইলে একজন অপরাধীর ছায়া সারা জীবন তোমাকে বহন করতে হতো। একাকীত্বের বোঝা তোমাকে তিল তিল করে নিঃশেষ করে দিতো।

আমিতো তোমাকে অনেকগুলো কারণে সৌভাগ্যবতী মনে করি। এক. স্বল্প সময়ে তুমি প্রতারক চিনতে পেরেছো। দুই. ভ্রূণ হত‍্যার মতো পাপ করে তোমার সারাটা জীবন বাঁচিয়ে দিয়েছে। তিন. তোমার মাথার উপর অগাধ বিশ্বাস রাখার মতো একজন বটগাছ ( তোমার সম্পাদক ) রয়েছেন। চার. আমার মতো অসংখ্য শুভাকাঙ্খী রয়েছে।

এবার আমি মূল কথায় আসি। তুমি চোখ বন্ধ কর। ধর তোমার চারপাশে আমিসহ আমরা কেউ নেই। মাথার উপর তপ্ত আকাশ। মাটি যেন কাঠফাটা আগুন। সামনে বিশাল নদী। তোমাকে যে করেই হোক নদী পাড়ি দিতে হবে। কোনভাবেই পেছনে পা রাখা যাবে না। ঠিক ওই সময় ওই মুহূর্তে তোমার সর্বোচ্চ শক্তি, বুদ্ধি, মেধা ও বিচক্ষণতা দিয়ে আস্তে আস্তে করে তোমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে। মনে রাখতে হবে পেছনে পা রাখা যাবেনা। ঠিক এমন একটি সময় সামনে আসতে চলেছে তোমার অপরাধীর অপরাধ প্রমাণের ক্ষেত্রে। এমন সময় হয়তো তোমাকে তোমার বিপরীত পক্ষ চরিত্রহনন থেকে শুরু করে যে কোনো নিম্নমানের ভাষা ব‍্যবহার করতে পারে। তোমাকে অতি ধৈর্যের সাথে সুকৌশলে এসব এড়িয়ে যেতে হবে। মনে রাখতে হবে, তুমি একজন অপরাধীর অপরাধ প্রমাণে মাঠে নেমেছো। তোমাকে আরো সচেতন থাকতে হবে। কেউ কেউ হয়ত তোমার খুব কাছের মানুষ সেজে তোমাকে আবারও প্রতারিত করতে চাইবে। সে সব ক্ষেত্রে অবশ্যই তোমাকে বিচক্ষণ থাকতে হবে।

ওই যে, প্রথমেই বলেছিলাম ‘বেড়ায় নাকি ক্ষেত খায়’। হতে পারে যাকে তুমি সবচেয়ে আস্থাভাজন ভাবছো সেই-ই তোমার সরলতার সুযোগে মামলাটি নষ্ট করার চেষ্টা করছে। আমার আজকের এই লিখাটি শুধু তোমাকে তোমার যুদ্ধটাকে একলা চল রে শেখানোর জন‍্য। আবারও প্রতারিত না হওয়ার জন‍্য। লক্ষী বোন পারুল, তোমাকেই বলছি। আর ভুল করা যাবে না। খুব ভেবে চিন্তে পথ পাড়ি দিতে হবে। বাস্তবতা বড়ই কঠিন, নির্মম। আর সেই কঠিনেরেই তোমাকে ভালোবাসতে হবে। তবেই তুমিসহ আমাদের মুক্তি মিলবে। আমাদের মতো আবেগপ্রবণ যারা তাদের জীবনে দুঃখ আসে, কষ্ট আসে। কিন্তু মহান আল্লাহ কাউকেই ঠকান না। ঠিক সময়ে শেষ হাসিটা আমরাই হাসবো।

সৌজন্যে: ওমেননিউজ

লেখক: জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না, কবি ও সাংবাদিক

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত