ঢাকা, রোববার, ৩১ মে ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৫ মে ২০২০, ১৫:২২

প্রিন্ট

সাক্ষাতকারে ফারহানা রহমান তৃষা

আমাদের সব পরিকল্পনা শিক্ষার্থীদের ঘিরে, তাদের জন্যই আমরা

আমাদের সব পরিকল্পনা শিক্ষার্থীদের ঘিরে, তাদের জন্যই আমরা
ছবি: ফারহানা রহমান তৃষা

Evaly

জার্নাল ডেস্ক

বিশ্বে করোনাভাইরাসের ভয়াল থাকায় বিপর্যস্ত জনজীবন। মরণব্যাধী এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বেড়েই চলেছে। এ রোগ থেকে বাঁচাতে পারে এমন প্রতিষেধক এখনো আবিষ্কার হয়নি। তবে গবেষকরা অনবরত তাদের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আপদকালীন নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে সারাবিশ্বের অনেক দেশই লকডাউন ঘোষণা করেছে। বাদ পড়েনি বাংলাদেশও। দেশের সকল সেক্টরের মত বন্ধ রয়েছে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। কবে নাগাদ পাঠদান কার্যক্রম শুরু হবে সে নিশ্চয়তাও দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এমন সংকটে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলো। করোনা মহামারিতে শিক্ষাক্ষেত্র যাতে অচল হয়ে না পড়ে সেদিকে খেয়াল রেখে চালু করা হয়েছে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম।

করোনার সংকটকালীন এই সময়ে পাঠক্রিয়ায় অনলাইন শিক্ষার গুরুত্ব, সফলতা, সুবিধা, অসুবিধাসহ নানা প্রসঙ্গ নিয়ে বাংলাদেশ জার্নালের সাথে কথা বলেছেন ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ফার্মেসি বিভাগের প্রভাষক ফারহানা রহমান তৃষা। সঙ্গে ছিলেন ডিআইইউ প্রতিনিধি ফাতেমাতুজ জোহরা

বাংলাদেশ জার্নাল: মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যখন সব বন্ধ এমন সময় চালু করা হয়েছে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম। শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন ক্লাস কতটুকু কার্যকরী?

ফারহানা রহমান তৃষা: দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে শিক্ষাক্ষেত্রকে গতিশীল রাখতে অনলাইনে ক্লাস খুব ভালো উদ্যোগ। এই ক্লাসের মাধ্যমেই আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের সংস্পর্শে থাকতে পারছি। এমন হতো যদি যে একদম কোনো ক্লাস বা যোগাযোগ নেই তাহলে অনেকেই পড়াশুনা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতো। অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে তাদের একটা গাইড লাইন দিতে পারছি আমরা। তাদের যেন কোনো সেশন জটে পড়তে না হয় এবং যথাসময়ে সেশন শেষ করাটা ও শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার মধ্যে রাখাটাই অনলাইন ক্লাসের উদ্দেশ্যে।

বাংলাদেশ জার্নাল: শিক্ষার্থীদের কীভাবে অনলাইনে ক্লাস করার জন্য আগ্রহী করে তুলছেন?

ফারহানা রহমান তৃষা: আমাদের সকল কার্যক্রম শিক্ষার্থীদের নিয়ে। তাদের কথা চিন্তা করেই আমরা অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করেছি। আমরা প্রতিনিয়ত তাদের নানাভাবে মোটিভেট করে যাচ্ছি। আমরা বিভিন্ন নোটিশের মাধ্যমে তাদের অনলাইন ক্লাসের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। তাদের সাথে কথা বলে তাদের বুঝাচ্ছি যে অনলাইনে ক্লাস তাদের মঙ্গলের জন্যই। তারা যেন কোনোভাবে পিছিয়ে না পড়ে সেদিক বিবেচনা করেই আসলে আমদের এ কার্যক্রম। তাছাড়া অনলাইন ক্লাসের যে গুরুত্বটা শিক্ষার্থীদের মাঝে রয়েছে সেগুলোকে নানাভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করছি। এভাবেই ধাপে ধাপে আমরা শিক্ষার্থীদের আগ্রহী করে তুলছি যাতে করে তারা নিয়মিত অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করে নিজেদের এগিয়ে রাখে।

বাংলাদেশ জার্নাল: যারা বিভিন্ন সমস্যার কারণে অনলাইনে ক্লাস করতে পারছে না তাদের জন্য আপনাদের কোন পরিকল্পনা কী?

ফারহানা রহমান তৃষা: অনেক শিক্ষার্থী আমাদের বলেছে যে, তারা বিভিন্ন সমস্যার কারণে আমাদের সাথে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারছে না। আমরা ধরেই রেখেছি কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী হয়তো আমাদের এ ব্যবস্থার আওতায় পড়বে না। যারা সত্যিকার অর্থে সমস্যায় পড়ে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারছে না তাদের জন্য আমরা একটা সুযোগ অবশ্যই রাখবো যাতে তারা অন্যান্য শিক্ষার্থীদের থেকে পিছেয়ে না পড়ে। আশাকরি এমন শিক্ষার্থী কম হবে। নিঃসন্দেহে আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো শিক্ষার্থীদের জন্য।

বাংলাদেশ জার্নাল: শিক্ষকরা অনলাইনে ক্লাস নিতে কোন রকম সমস্যা বা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন কি?

ফারহানা রহমান তৃষা: আমি এ যাবত অনলাইনে যতগুলো ক্লাস নিয়েছি তেমন কোনো সমস্যার সম্মুখীন হইনি। মাঝে মাঝে নেটওয়ার্ক জনিত কারণে কিছুটা অসুবিধা হলেও সেটিকে খুব বড় সমস্যা বলে মনে করি না। আমাদের কাছে আমাদের শিক্ষার্থীরা সবার আগে। তাদের জন্য সব সমস্যার সম্মুখীন হতে আমরা রাজি। আমাদের সব পরিকল্পনা তাদের ঘিরে, তাদের জন্যই আমরা। আমাদের চেষ্টাই থাকে কিভাবে আমাদের শিক্ষার্থীদের সর্বোচ্চ মঙ্গল সাধন করা যায়। তাদের মঙ্গলের জন্য আমাদের যতটুকু করার আমরা করবো।

বাংলাদেশ জার্নাল: এই সংকটে শিক্ষার্থীদের জন্য কোনো নির্দেশনা?

ফারহানা রহমান তৃষা: অবশ্যই তারা সবাই নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করবে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলবে। অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে আমাদের সাথে যুক্ত থাকবে আমরা আমাদের সর্বোচ্চ দিয়ে তাদের সাহায্য করার চেষ্টা করবো। মনে রাখতে হবে আধার শেষে আলো আসবেই। করোনার এই সংকটময় মুহূর্তে শিক্ষাক্ষেত্র চ্যালেঞ্জের মুখে৷ আশাকরি, দৃষ্টিভঙ্গির ইতিবাচক পরিবর্তনের মধ্যে দিয়েই আমরা এই সংকটকে শক্তিতে রূপ দিতে পারবো।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

shopno
  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত