ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ১৯ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০২ মার্চ ২০২১, ১৮:৫৩

প্রিন্ট

দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙ্গে চুরমার করেছে সরকার

দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙ্গে চুরমার করেছে সরকার

জার্নাল ডেস্ক

বর্তমান সরকার দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থা ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে বলে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টি (জাপা) মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

এসময় মানুষের ভোটাধিকার রক্ষার আন্দোলনে প্রয়োজনে প্রাণ দেবো, কিন্তু মাথা নত করবো না বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, চলমান স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা জিতেছে আর হেরেছে দেশের ভোটাররা। ভোট দিতে না পেরে ভোটাররা রাস্তায় কান্না করছেন, এটা মেনে নেয়া যায় না।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে, মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। আমরা মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠিত করবো। মানুষের ভোটাধিকার রক্ষার আন্দোলনে প্রয়োজনে প্রাণ দেবো কিন্তু মাথা নত করবো না।

তিনি জানান, বর্তমান সরকারের অধীনে আর কোন নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অংশ নেবে কিনা তা আগামী প্রেসিডিয়াম সভায় সিদ্ধান্ত হবে বলেও জানান জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

জাপা মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, নির্বাচনে ইভিএম মেশিনে শতভাগ ভোট পড়ছে, এটা কোনো ভাবেই সম্ভব নয়। ইভিএমকে আওয়ামী ইভিএম-এ পরিণত করা হয়েছে। ইভিএম নয়, ইভিএম পরিচালনায় জড়িতদের পরিবর্তন করতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামীতন্ত্র আর গণতন্ত্র এক সঙ্গে চলতে পারে না। জাতীয় পার্টি মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার নিশ্চিত করতে রাজনীতি করছে। গণমানুষের মৌলিক ও মানবাধিকার রক্ষার আন্দোলনে জাতীয় পার্টি কখনো মাথা নত করবে না। প্রহসনের নির্বাচন বন্ধ করতে আমাদের সংগ্রাম চলবে। ভোটের নামে সন্ত্রাস হচ্ছে, নৈরাজ্য হচ্ছে, কেন্দ্র দখল হচ্ছে, মানুষের প্রাণহানী ঘটছে এটা বন্ধ করতে হবে।

সরকারের উদ্দেশ্যে জাপা মহাসচিব বাবলু বলেন, নির্বাচনের নামে সন্ত্রাস আর খুনাখুনি বন্ধ করে ডিজিটাল গেজেটের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয়ী ঘোষণা করুন। তাতে দেশ নৈরাজ্যকর অবস্থা থেকে মুক্তি পাবে।

তিনি বলেন, সৈয়দপুর পৌরনির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করতে আমরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে অনুরোধ করেছি। তারা সবাই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের আশ্বাস দিলেও হয়েছে পুরোই উল্টো।

নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ চান কি না সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টি মহাসচিব বাবলু বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের লাজ-লজ্জা থাকলে তাদেরই উচিত সিদ্ধান্ত নেওয়া।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ভোটাধিকার হচ্ছে মানুষের সাংবিধানিক অধিকার তাই জাতীয় পার্টি গণমানুষের ভোটাধিকার রক্ষার আন্দোলনে এগিয়ে যাবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রসঙ্গে অপর এক প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, ভাষা আন্দোলনের মাসে মানুুষ কথা বলতে পারে না। গণমাধ্যম প্রকৃত সত্য তুলে ধরতে পারছে না। এছাড়া যে আইনে মানুষের মৌলিক ও মানবাধিকার লঙ্ঘন হয় সে আইনের পরিবর্তন চাই আমরা।

এ সময় সদ্য সমাপ্ত সৈয়দপুর পৌর নির্বাচনে জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মো. সিদ্দিকুল আলম (সিদ্দিক) বলেন, মাত্র দুই ঘণ্টার ভোটে প্রায় ১০ হাজার ভোট পেয়েছি। সুষ্ঠু ভোট হলে বুঝতে পারছেন জাতীয় পার্টি কত ভোট পেতো।

তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন সুষ্ঠু হলে সরকার পরিবর্তন হয় না কিন্তু আওয়ামী লীগ ভোট ডাকাতি করে নিজেরাই তাদের ভাবমুর্তি নষ্ট করেছে। জোর করে জাতীয় পার্টির বিজয় কেড়ে নেওয়া হয়েছে সৈয়দপুর পৌর নির্বাচনে।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, সংসদ সদস্য (এমপি) মেজর (অব.) রানা মো. সোহেল, ভাইস চেয়ারম্যান আহসান আদেলুর রহমান, এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ প্রমুখ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত