ঢাকা, শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৫৪ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৪ মার্চ ২০২১, ১১:৪৮

প্রিন্ট

আকিলার হ্যাটট্রিক, পোলার্ডের টানা ছয় ছক্কা

আকিলার হ্যাটট্রিক, পোলার্ডের টানা ছয় ছক্কা

স্পোর্টস ডেস্ক

এক ম্যাচেই হ্যাটট্রিক ও এক ওভারে ৬ ছক্কা! টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট প্রেমীদের জন্য যা চোখের শান্তি। এমনই এক মূহুর্ত উপহার দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম শ্রীলঙ্কার তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি। অ্যান্টিগায় হওয়া ম্যাচটি অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের তাণ্ডবে ৪১ বল বাকি থাকতে ৪ উইকেটে জিতে নিয়েছে ক্যারিবিয়ানরা।

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে আকিলা ধনঞ্জয়া হ্যাটট্রিক করে চেপে ধরেছিলেন স্বাগতিকদের। কিন্তু এই স্পিনারের পরের ওভারেই তা ছাপিয়ে যান কিয়েরন পোলার্ড। ওই ছয় বলে ৬ ছক্কায় সাফল্য খুব সহজে ধরা দিলো ক্যারিবিয়ানদের।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২০ রানে ওপেনার দানুশকা (৪) গুনাথিলাকাকে হারায় শ্রীলঙ্কা। নিরোশান ডিকবেলা ও পাথুম নিশানকার ৫১ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় তারা। কিন্তু ১২ রানের ব্যবধানে দুজনের বিদায়ের পর পুঁজি বাড়াতে পারেনি লঙ্কানরা। ডিকবেলা ৩৩ ও পাথুম ইনিংস সেরা ৩৯ রানে আউট হন। ৯ উইকেটে ১৩১ রানে থামে শ্রীলঙ্কা।

ওবেদ ম্যাককয় ২ উইকেট নিয়ে ক্যারিবিয়ানদের পক্ষে সেরা বোলিং করেন। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন কেভিন সিনক্লেয়ার, জেসন হোল্ডার, ফিদেল এডওয়ার্ডস, ডোয়াইন ব্রাভো ও ফ্যাবিয়ান অ্যালেন।

১৩২ রান তাড়া করতে নামা উইন্ডিজের ইনিংসেই শুরু হয় বিনোদন। ওপেনিংয়ে দুর্দান্ত শুরু পাওয়া ক্যারিবিয়ানরা বড় ধাক্কা খায় ইনিংসের চতুর্থ ওভারে। নিজের দ্বিতীয় ওভার করতে আসা আকিলা ধনাঞ্জয়াকে চার মেরে স্বাগত জানান ওপেনার এভিন লুইস। লঙ্কান স্পিনার তার প্রতিশোধ নেন পরের বলে।

দ্বিতীয় বলে লুইসকে (২৮) গুণাথিলাকার হাতে ক্যাচ বানান ধনাঞ্জয়া। পরের বলে ক্রিস গেইলকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তিনি। দুই বছর পর জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলতে নেমে ডাক মেরে ফেরেন ‘ইউনিভার্সেল বস’। চতুর্থ বলে নিকোলাস পুরানকে (০) ডাক উপহার দেন ধনাঞ্জয়া। তার এক ঝড়েই ৫২ রানে তিন টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় উইন্ডিজ।

৬৪ রানে ৪ উইকেট হারানোয় কোনও চাপই নেননি ধনয়ঞ্জয়ার হ্যাটট্রিকের পর ক্রিজে নামা পোলার্ড। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে প্রথম বলে লং অনের ওপর দিয়ে মারেন ছয়। পরের বলে সাইট স্ক্রিনের দিকে ছক্কা হাঁকান। তৃতীয় ছক্কাটি যায় লং অফের ওপর দিয়ে। এরপর ডিপ মিডউইকেট, লং অন ও মিড উইকেট দিয়ে ছয় মেরে যুবরাজ সিংয়ের কীর্তিতে ভাগ বসান পোলার্ড। মাত্র ৬.৪ ওভারে স্কোর ১০১ রান এনে দিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। ১১ বলে অধিনায়কের ৩৮ রানের ইনিংসে ছিল ওই ছয়টি ছক্কাই।

পরে হোল্ডার ২৪ বলে ২৯ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। তার সঙ্গে ৪ রানে অন্য প্রান্তে অপরাজিত ছিলেন ব্রাভো। ১৩.১ ওভারে ৬ উইকেটে ১৩৪ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ধনঞ্জয়া ৪ ওভারে ৬২ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। সমান উইকেট পান হাসারাঙ্গা।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত