ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৬:৪৭

প্রিন্ট

‘রিয়াল না চাইলে সরে দাঁড়াবো’

‘রিয়াল না চাইলে সরে দাঁড়াবো’
স্পোর্টস ডেস্ক

প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইর বিপক্ষে ৩-০ গোলের পরাজয়ের পর রিয়াল মাদ্রিদের কোচ হিসেবে জিনেদিন জিদান বেশ চাপে আছেন বলেই মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। রেকর্ড টানা তৃতীয়বারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জেতার পর মাদ্রিদের কোচের পদ থেকে ২০১৮ সালে সড়ে দাঁড়ান জিদান। এরপর সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য জুলেন লোপেতেগুই ও সান্তিয়াগো সোলারি কোচের পদে থাকলেও চলতি বছর মার্চে আবারো মাদ্রিদে ফিরে আসেন ফ্রেঞ্চম্যান জিদান।

তবে এবারের ফেরাটা এখনো সুখকর হয়নি। তার অধীনে ১১ ম্যাচে এ পর্যন্ত মাদ্রিদ মাত্র পাঁচটিতে জিতেছে। গ্রীষ্মকালীন দল বদলে ছয়জন খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়েও সৌভাগ্য পায়নি স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

ইএসপিন এফসি’র কাছে ক্লাবের একটি সূত্র জানিয়েছে, বোর্ড সদস্যরা মনে করছেন দল শক্তিশালী হলেও নিজেদের মান অনুযায়ী খেলতে পারছে না। যদিও পিএসজি’র কাছে পরাজিত হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মিশন শুরু করার পরও জিদান ক্লাবের ভাগ্য নিয়ে মোটেই চিন্তিত নন। এবারের গ্রীষ্মে মাদ্রিদ এডার মিলিটাও, এডেন হ্যাজার্ড, ফারল্যান্ড মেন্ডি, লুকা জোভিচ, রডরিগো ও আলবার্তো সোরোকে দলে ভিড়িয়েছে। এছাড়াও বায়ার্ন মিউনিখে ধারে দুই বছরের জন্য খেলতে যাওয়া হামেস রড্রিগুয়েজকে আবারো স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। যদিও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে মিডফিল্ডার পল পগবাকে দলে নিতে ব্যর্থ হয়েছিল মাদ্রিদ। মৌসুম শুরুর পূর্বে তারকা এই মিডফিল্ডারই জিদানের দলবদলের তালিকায় প্রথম পছন্দ ছিল। বিশেষ করে মধ্য মাঠে খেলোয়াড়ের সঙ্কটের বিষয়টি বেশ কিছুদিন ধরেই মাদ্রিদকে চিন্তিত করে তুলছে।

সূত্রটি আরো জানিয়েছে ড্রেসিং রুমে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় বিশ্বাস করতে শুরু করছেন যে জিদান ‘আর আগের মত নেই’। একইসাথে অনেকেই তার পরিবর্তে আবারো নতুন কোচ দলে আসার শঙ্কাও প্রকাশ করেছে। এক্ষেত্রে হোসে মরিনহোর নাম পছন্দের তালিকায় থাকতে পারে বলেও ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। জুভেন্টাসের সাবেক বস মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির নামও সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকায় আগে থেকেই ছিল।

রবিবারের লা লিগা ম্যাচের আগে জিদান বললেন, ‘‘কখনওই মনে করি না যে ভুল রণনীতির জন্য পিএসজি'র কাছে হেরেছে দল। ক্লাব পাশে আছে। সবাই উৎসাহই দিয়ে যাচ্ছে। যখন বুঝব ক্লাব চাইছে না, নিজে থেকেই দায়িত্ব ছেড়ে চলে যাব। আমাকে বলতে হবে না।’’

সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘ছেলেদের একটু সময় দিতে হবে। গতবার মাঝপথে দায়িত্ব নিয়েছিলাম। এবার দল সাজানোর পরে চোট-আঘাত নিয়ে সমস্যা হয়েছে। আমি হাল ছাড়ার লোক নই। চেষ্টা করে যাব।’’ রবিবার সেভিয়ার বিরুদ্ধে খেলা রিয়ালের।

রোববার লা লিগায় সেভিয়ার মুখোমুখি হবে মাদ্রিদ। এরপর শনিবার মাদ্রিদ ডার্বিতে এ্যাথলেটিকোর মোকাবেলার করার আগে সপ্তাহের মাঝামাঝিতে ওসাসুনার মোকাবেলা করবে। বার্সেলোনা সম্প্রতী ওসাসুনার সাথে ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত