ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ১৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:১০

প্রিন্ট

ইতিহাস গড়ে নতুন দ্রুততম মানব কোলম্যান

ইতিহাস গড়ে নতুন দ্রুততম মানব কোলম্যান
স্পোর্টস ডেস্ক

কোলম্যানের বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতার বাইরে ডোপ পরীক্ষা না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল আগস্টেই। যা প্রমাণিত হলে প্রায় দু'বছরের জন্য নির্বাসিত হতে পারতেন। সে ক্ষেত্রে আগামী বছর টোকিও অলিম্পিকেও নামতে পারতেন না কোলম্যান। শেষ পর্যন্ত আমেরিকার ডোপিং বিরোধী সংস্থা অবশ্য অভিযোগ তুলে নেয় পরীক্ষার সময় নিয়ে ত্রুটি থাকায়। কোলম্যান সে কারণেই দোহায় বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স মিটে নামতে পারেন।

শনিবার রাতে দোহায় ১০০ মিটার ফাইনালে নামতে পারার সুযোগ পুরোপুরি কাজে লাগালেন ২৩ বছরের কোলম্যান। গ্যাটলিনকে হারিয়ে তিনিই সোনা জিতলেন ৯.৭৬ সেকেন্ডে ১০০ মিটার দৌড়ে। তার এই সময় সর্বকালের হিসেবে ষষ্ঠ দ্রুততম। দু'বছর আগে লন্ডনে সোনা জিতেছিলেন গ্যাটলিন। যিনি ইতিহাসে সামিল হতে পারলেন না চ্যাম্পিয়নশিপের সোনা ডিফেন্ড করতে না পেরে। ইতিহাসে মাত্র তিনজন অ্যাথলিট বিশ্ব মিটে ১০০ মিটারের সোনা ডিফেন্ড করতে পেরেছিলেন। কার্ল লুইস, মরিস গ্রিন ও উসেইন বোল্ট। গ্যাটলিন তাদের ছুঁতে পারলেন না ঠিকই, কিন্তু ৩৭ বছরেও বিশ্ব মিটে রুপো কম কৃতিত্বের নয়। ব্রোঞ্জ জিতলেন কানাডার আন্দ্রে দে গ্রাসে।

যতই সোনা জিতুন কোলম্যান, তাকে ঘিরে বিতর্ক কমছে না। আমেরিকান কিংবদন্তি অ্যাথলিট মাইকেল জনসন বলেছেন, 'মিটে নামতে পারলেও কোলম্যানকে ঘিরে যে বিতর্ক আছে, তাতে অ্যাথলেটিক্সের মুখ কখনওই হতে পারবে না ও।' তার বিরুদ্ধে আমেরিকান ডোপিং বিরোধী সংস্থার অভিযোগ ছিল, ১২ মাসে তিনবার ডোপ পরীক্ষা দেননি কোলম্যান। তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে কোলম্যান বলেছিলেন, ওই তিন পরীক্ষার একটি ছিল নির্দিষ্ট সময়ের আগে। ওই একটি ভুলের জন্য আমেরিকান ডোপিং বিরোধী সংস্থা অভিযোগ তুলে নেয়। ফলে বিশ্ব মিটে নামার ছাড়পত্রও পেয়ে যান আমেরিকান অ্যাথলিট।

এত বিতর্কের মাঝে সোনা জেতার পর কোলম্যানের বক্তব্য, 'আমি ভদ্রলোক। আমি এখানে খেতাব জিততে এসেছি।' জুড়ে দেন, 'এই সময়টা অবিশ্বাস্য। আমার কাছে এখন আকাশটাই সীমা। এখনও অনেক বিষয়ে আমাকে উন্নতি করতে হবে। ১০০ মিটার দৌড়নোর সময় এখনও কমাতে পারি।' অন্য দিকে গ্যাটলিন অনেকদিন পর পাশে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে পেলেন না বোল্টকে। ফাইনালে নামার আগে বলেছিলেন, 'উসেইন ছাড়া বিশ্ব মিট আমার কাছে বেশ অদ্ভুত।' সেই 'অদ্ভুত' ফাইনালে তিনি কোলম্যানের থেকে পিছিয়ে থাকলেন ০.১৩ সেকেন্ড।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত