ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫ অাপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:৩৪

প্রিন্ট

মায়েদের পেটের ফাটা দাগ কমাবেন যেভাবে

মায়েদের পেটের ফাটা দাগ কমাবেন যেভাবে
জার্নাল ডেস্ক

একজন মা সন্তানকে প্রায় দুই লিটার পানিসহ গর্ভে ধারণ করেন। তাছাড়া জরায়ুর আয়তন আগের চেয়ে ২০ গুণ বড় হওয়ায় মায়েদের পেটের ত্বকের টিস্যু ধীরে ধীরে রাবারের মতো ঢিলা হতে থাকে।

এছাড়া গর্ভে থাকা সন্তানের আকার বড় হওয়ার সাথে সাথে স্বাভাবিকভাবেই পেটে টান পড়ে। এতে পেটে প্রথমে ফাটা দাগ দেখা দেয়। এই দাগ শিশুর জন্মের আগে সাধারণত পেট, ঊরু ও নিতম্বে হয়। তবে এমনটা যে সবার ক্ষেত্রেই হয় তা কিন্তু নয়। এর পেছনে কিছুটা বংশগত কারণও থাকতে পারে।

দাগ কমাতে গর্ভবতী থাকাকালীন স্বাস্থ্যকর কিছু খাবার খেতে হবে। অর্থাৎ খাবারের তালিকায় থাকতে হবে শস্যদানাযুক্ত খাবার, মাছ এবং বিভিন্ন সবজি। যেমন ব্রোকলি, গাজর এবং ভিটামিন ই ও সি যুক্ত খাবার। তাছাড়া চিনিবিহীন চা এবং প্রচুর পানি পান করতে হবে।

এছাড়া একটু হাঁটালে শরীরে সঠিকভাবে রক্ত সঞ্চালন হয়। ফলে ত্বক দাগ হওয়া থেকে রক্ষা পেতে পারেন মায়েরা।

চিকিৎসিকের পরামর্শে গর্ভবতীরা যোগ ব্যায়ামের মতো হালকা ব্যায়াম করতে পারেন। প্রথমে ঠাণ্ডা, পরে গরম, আবার ঠাণ্ডা পানি এভাবে গোসল করলে ত্বকে ব্লাড সঞ্চালন ভাল ভাবে হয়।

প্রতিদিনই গোসল করার সময় পেট, নিতম্ব, ঊরু ও স্তনে আলাদা আলাদাভাবে ঠাণ্ডা-গরম-ঠাণ্ডা পানি দিতে হবে।

তবে মনে রাখতে হবে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিয়েই গোসল শেষ করতে হবে। গোসলের সময় শরীর হালকাভাবে মালিশ করলে ত্বকে দাগ হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে।

গর্ভবতী নারীরা অনেকেই পেটে সাধারণ তেল মালিশ করে থাকেন। কিন্তু সবচেয়ে ভাল হয় যদি প্রতিদিন দুই বেলা সুগন্ধি বা রাসায়নিক পদার্থ ছাড়া তৈরি বাদাম তেল মালিশ করা হয়। কারণ বাদাম তেল ত্বককে মসৃণ ও সুন্দর রাখে।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close
close