ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ অাপডেট : ১ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ১১:৩৪

প্রিন্ট

মাকে খুশি করবেন যে উপায়ে

মাকে খুশি করবেন যে উপায়ে
জার্নাল ডেস্ক

আজ মা দিবস। মাতৃদিবস দিনটি মূলত রোম থেকে এলেও সারা বিশ্বেই এই দিনটা সমান জনপ্রিয়। মে মাসের দ্বিতীয় রবিবার বিশ্বের ৪৬ টি দেশের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দেশেও মাতৃদিবস পালন করা হয়।

এই দিনটি উপলক্ষে দোকানে দোকানে মায়েদের জন্য উপহারের সম্ভার। যদিও বেশির ভাগ মায়ের কাছে তাদের জীবনের সেরা উপহার তাদের সুসন্তান। কিন্তু তাই বলে সন্তানেরা তো আর হাত গুটিয়ে বসে থাকতে পারেন না! তাদের সাধ্য মতো কিছু সুন্দর উপহার মাকে দিতে মন চায় সকলেরই।

তবে সবার বাজেট বা ভাবনা সমান নয়। তাতে কী, হৃদয়ে ভালোবাসা থাকলে যে কোনো উপহারই সেরা হয়ে উঠতে পারে। মায়ের মুখে হাসি ফোটাতে সব সময়ই যে খুব দামী উপহার কিনতে হয় এমন নয়, এমনকি, উপহারও যে খুব প্রয়োজন তাও নয়। তা হলে এবার মাতৃদিবসে কীভাবে একটু আনন্দ দিতে পারেন মা-কে? কাজে লাগাতে পারেন এ সব পরামর্শ।

মায়ের সব কাজকর্মকে বেশির ভাগ মানুষই সাধারণ মনে করেন। এই ব্যবহার থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করুন। মায়ের প্রতিটি ছোট ছোট কাজের পিছনে তার ভালবাসা আর নিষ্ঠাকে স্বীকৃতি দিন। বিশ্ব মাতৃদিবসে সকালে ঘুম ভেঙে উঠেই মায়ের জন্য গরম ধোঁয়া ওঠা এককাপ চা বানিয়ে মায়ের ঘুম ভাঙান, সঙ্গে দিতে পারেন নিজের হাতে বানানো কেক বা কুকি। এই উপহার মায়ের কাছে হবে অমূল্য।

মাকে চমক দিতে ব্রেকফাস্টে বানিয়ে ফেলুন মায়ের প্রিয় কোনো খাবার। আর একেবারেই না পারলে অর্ডার করে হোম ডেলিভারিতে আনিয়ে নিন ব্রেকফাস্ট।

অনেক সময় মায়ের কোনো শখ সংসারের চাপে হারিয়ে যায়। মা হয়তো গাছ, ফুল অথবা গান ভালোবাসতেন। কিন্তু সেই শখ আর বজায় রাখতে পারেননি। মায়ের জন্য কিনে আনতে পারেন টব-সহ ফুল বা পাতাবাহার গাছ। খরচ এমন কিছু বেশিও নয়। সম্ভব হলে ঘরের কোণে রাখার মত রট আয়রন স্ট্যান্ড-সহ গাছ কিনে উপহার দিতে পারেন।

এছাড়া পছন্দের কোনো শিল্পীর গানের সিডিও কিনে দিতে পারেন। কাজের ফাকে ফাঁকে গান শুনতে পারবেন। মায়ের পছন্দের কোনো গল্প বা উপন্যাসের বই অথবা রান্নার বই উপহার দেয়া যেতে পারে।

একটু অন্য রকম ভাবে সময় কাটানোর জন্য মাকে যোগা ক্লাশে ভর্তি করে দেয়া যায়। শরীর মন দুইই ভাল থাকবে। মাকে দেয়া সেরা জিনিস হলো সময়। এক দিন নয়, প্রতিদিন কিছুটা করে সময় রাখুন মায়ের জন্য। যদি দূরে থাকেন মাকে নিয়ম করে ফোন করে কথা বলুন।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close