ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : ৪৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৮ জুলাই ২০২০, ১৬:৩৫

প্রিন্ট

ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডসে গ্লোবাল থিংকার্স সোসাইটি

ওয়ার্ল্ড বুক অব রেকর্ডসে গ্লোবাল থিংকার্স সোসাইটি
নিজস্ব প্র‌তি‌বেদক

করোনা মোকাবেলা করে ভবিষ্যত স্বপ্ন জয়ের প্রত্যাশায় আন্তর্জাতিক অন-লাইন যুব সম্মেলন ‘ভার্চুয়াল ইয়ুথ সামিট অ্যান্ড লিডারশিপ এওয়ার্ড ২০২০: ফাইট করোনা উইন ফিউচার ’ ওয়ার্ল্ড বুক রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছে। এই দুর্যোগকালিন সময়ে গ্লোবাল থিংকার্স সোসাইটির উদ্যোগে অনলাইনে বিশ্বের ১০০টি দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান গ্লোবা থিংকার্স সোসাইটির প্রেসিডেন্ট রাওমান স্মিতা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি আহসানুল আলম, জেনারেল সেক্রেটারি এডভোকেট খালেদ মাসুদ মজুমদার, জয়েন্ট সেক্রেটারি সোলায়মান আহমেদ জীসান, অর্গানাইজিং সেক্রেটারী এডভোকেট জেসমিন আক্তার প্রমুখ।

স্মিতা বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মত আয়োজিত এ ধরনের আন্তর্জাতিক ভার্চুয়াল ইয়ূথ সামিটে বিশ্বের ১০০টি দেশ ও স্বাগতিক বাংলাদেশের ৬৪ জেলার যুব প্রতিনিধিরা অংশগ্রহন করেন।দুইদিনের ২৪ ঘন্টার ম্যারাথন প্রোগ্রামে ৪ হাজার ৫০৭ জন অনলাইন রেজিস্টার্ড অংশগ্রহন করেন। যার মধ্যে বিভিন্ন দেশের ৫৫ আন্তর্জাতিক মান সম্পন্ন ও স্বনামধন্য বক্তা বক্তব্য রাখেন। যেখানে ১০ জন বিচারকের মাধ্যমে ২২ জন কে পুরস্কৃত করা হয়।

তিনি আরো বলেন, গত ১৭ জুলাই সকালে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান সামিটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন। ১৮ জুলাই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে সকালের অধিবেশনে পধান অতিথি ছিলেন, মালয়েশিয়ার যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ওয়ান আহমেদ ফয়সাল। রাত ৮টায় মালয়েশিয়ার সেলানগর স্টেট অ্যাসেম্বলি রিপ্রেজেন্ট এবং সেলানগর এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল মেম্বর গনবতিরাও ভেরামান অনষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। সম্মেলন পরবর্তী কার্যক্রম হিসাবে সংগঠনের ১০ বছর পুর্তিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ১০০ দেশের প্রতিনিধিরা একসাথে শ্রদ্ধা নিবেদন ও স্মৃতিচারণ করা হবে।

স্মিতা বলেন, সুস্বাস্থ্য ও মানসিক সমৃদ্ধি, টেকসই উন্নয়ন ও মানবাধিকার, শিক্ষা ও ইকোনমি এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ভার্চুয়াল ইয়ুথ সামিট। করোনার বিরুদ্ধে ভবিষ্যত স্বপ্ন জয়ের অনুপ্রেরণা তৈরির প্রত্যাশাই ছিলো এই কার্যক্রমে মূল লক্ষ্য।

এডভোকেট খালেদ মাসুদ বলেন, পৃথিবীর তরুনদের সকল প্রতিকুলতা মোকাবেলা করে জয়ের জন্য এগিয়ে আসতে হবে। এই করোনা থেকে জয়ের জন্য তরুনদেরই সাহসী ভূমিকা পালন করতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত