ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ১৩ মিনিট আগে

প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৬

প্রিন্ট

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুর্বৃত্তদের গুলিতে যুবক নিহত

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুর্বৃত্তদের গুলিতে যুবক নিহত
ছবি- প্রতিনিধি

কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজারের টেকনাফের দমদমিয়া ন্যাচার পার্ক সংলগ্ন ২৭ নং জাদিমুরা রোহিঙ্গা শিবিরে দুর্বৃত্তদের এলোপাতাড়ি গুলিতে মো. হোসেন (২২) নামের এক যুবক মারা গেছেন। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে মো. আয়াজ (১৯) এক রোহিঙ্গা যুবকও। বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. হোসেন জাদিমুরা এলাকার বাচা মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় সিএনজি অটোরিক্সা চালক। আহত আয়াজ জাদিুমুরা রোহিঙ্গা শিবিরের সি ব্লকের মজিব উল্লাহর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটের দিকে রোহিঙ্গা ডাকাত দলের সদস্যরা রোহিঙ্গা শিবিরে এসে এক রোহিঙ্গা যুবককে অপহরণ করবে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এতে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ডাকাত দলের সদস্যরা এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়ে পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। এ সময় ওই ২ যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরতর আহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। কক্সবাজার নেওয়ার পথে মো. হোসেন মারা যান।

রোহিঙ্গা শিবিরে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলাম তারিক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে জাদিমুরা এপিবিএন ক্যাম্পের অফিসার ও ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের তাৎক্ষনিক চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ক্যাম্প এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করাসহ দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলমান রয়েছে। বর্তমানে ক্যাম্প এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্রশীল বলেন, দুই যুবক গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়েছিল। একজনের মাথায় ও অপরজনের ফুসফুসে গুলি লেগেছে। তাদের জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

টেকনাফ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল আলীম জানিয়েছেন, দুর্বৃত্তদের গুলিতে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন মারা গেছেন। অপরজন সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশি তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত