ঢাকা, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬ অাপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৫ এপ্রিল ২০১৯, ০৯:০০

প্রিন্ট

বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনের উদ্যোগে কলকাতায় মঙ্গল শোভাযাত্রা

বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনের উদ্যোগে কলকাতায় মঙ্গল শোভাযাত্রা
কলকাতা প্রতিনিধি

কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ উপ হাইকমিশন মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে রোববার দিনব্যাপী বাংলা নববর্ষ উদযাপিত হয়।

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে আয়োজিত মঙ্গল শোভাযাত্রা উপস্থিত দর্শকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের তৈরি মুখোশ ও রয়েল বেঙ্গল টাইগারসহ নানান প্রাণী সদৃশ সুসজ্জিত মুখোশ নিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রাটি কলকাতার বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করে।

বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে মঙ্গল শোভাযাত্রাটি বাংলাদেশ গ্রন্থাগার ও তথ্য কেন্দ্র, ৩, সোহরাওয়ার্দী এভিনিউ, কলকাতা-১৭ থেকে পার্কসার্কাস সেভেন পয়েন্ট ক্রসিং পার হয়ে এ.জি.সি বোস রোড হয়ে বাংলাদেশ উপ হাইকমিশন প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। উপ হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং কলকাতায় সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মকর্তা কর্মচারীসহ কলকাতার কবি, সাহিত্যিক, রাজনীতিবিদ, বুদ্ধিজীবী ও বিভিন্ন পেশার মানুষ মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বাঙালির ঐতিহ্য নিয়ে বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এদিন উপ হাইকমিশনের ঐতিহ্যমন্ডিত সুসজ্জিত প্রাঙ্গণে বাঙালির চিরায়ত ঐতিহ্য ও আবহ রক্ষা করে মেলা ও বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে নাগরদোলা, বায়োস্কোপ, পালকি, ও শিশুদের বিভিন্ন ধরনের খেলনার আয়োজন ছিল এই মেলায়। মেলায় এ ধরনের আয়োজনে উপস্থিত শিশু কিশোররা খুবই পুলকিত হয়।

এ ছাড়া হাওয়া মিঠাই, বাতাশা, মোয়া, মুরকি, বিভিন্ন প্রকারের পিঠা, ঝাল মুড়ি, পান্তা ও বিভিন্ন প্রকার ভর্তা, খিচুড়ি ইত্যাদির ব্যবস্থা করা হয়। সেই সাথে চলতে থাকে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে।

অনুষ্ঠানে কলকাতার বিশিষ্ট ব্যক্তিরা, বিভিন্ন বিদেশি মিশনের কূটনীতিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপস্থিত অতিথিদের উদ্দেশে উপ হাইকমিশনার তৌফিক হাসান বলেন, প্রতিবারের মত এবারও কলকাতার রাজপথে মঙ্গল শোভাযাত্রায় মানুষ অংশগ্রহণ করে যে অভূতপূর্ব সাড়া দিয়েছেন তাতে আমি মুগ্ধ। বাংলাদেশের মত‘বাংলা নববর্ষ ১৪২৬’এখানেও সুন্দরভাবে উদযাপিত হয়েছে।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close