ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ১ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০২০, ১৯:২০

প্রিন্ট

বলিউডেও নিজের সেরাটা দেওয়ার ইচ্ছে আছে: পূষণ

বলিউডেও নিজের সেরাটা দেওয়ার ইচ্ছে আছে: পূষণ
বিনোদন প্রতিবেদক

পশ্চিমবঙ্গের ছোট ও বড়, দুই পর্দার পরিচিত মুখ পূষণ দাশগুপ্ত। থিয়েটার, ছোটপর্দা ছাপিয়ে নিয়মিত কাজ করছে বড় পর্দার দুনিয়ায়। জেনারেশন আমি, গোয়েন্দা জুনিয়র, পর্নোমচি, কিশোর কুমার জুনিয়র, ইয়েতি অভিযানসহ বেশ কয়েকটি সিনেমায় কাজ করে পরিচিত পাওয়া পূষণ সম্প্রতি মুখোমুখি হয়েছিলেন বাংলাদেশ জার্নালের। তাকে নিয়ে লিখেছেন কৌশিক এস রায়।

অভিনেতা হওয়ার পেছনের গল্প...

খুব ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের প্রতি ঝোঁক আমার। বলা যেতে পারে ৫/৬ বছর বয়স থেকেই। আমার মাসি অভিনয়ের ব্যাপারে আমাকে বেশ আগ্রহ জুগিয়েছিলো। একদিন পত্রিকার সুবাদে জানতে পারি আমাদের কলকাতার একটি নাট্যদল খোলার সংবাদ। মাসির সাহায্যেই অডিশনে অংশ নিয়ে সুযোগ পেয়ে যাই। থিয়েটার জগতের শুরুটা ওখান থেকেই। অনেক মঞ্চ নাটকে কাজ করেছি। এই থিয়েটারের হাত ধরেই মূলত ক্যামেরার জগতে আমার প্রবেশ এরপর ধীরে ধীরে মঞ্চনাটক, ছোটপর্দা এরপর বড়পর্দায়। সেই থেকে পথচলা শুরু।

অল্প সময়েই টলিউডের পরিচিত মুখদের সাথে কাজের সুযোগ...

এটি আমার জন্য অনেক বড় একটি পাওয়া। সব্যসাচী চক্রবর্তী, প্রসেনজিত চ্যাটার্জি সহ অনকের সাথেই আমার কাজ করা হয়েছে। এই বয়সে এই পাওয়া আমার জন্য অবশ্যই বিশাল অর্জন। আমি সবসময় চেষ্টা করি ভিন্ন আঙ্গিকে নতুন কিছু শিখতে, তাদের সাথে কাটানো প্রতিটি মুহূর্তে এটাই আমার লক্ষ্য থাকে। ওয়েব সিরিজ, সিনেমা কিংবা যা-ই বলুন প্রতিটি ক্যামেরাই আমার জন্য একেকটি বিরাট চ্যালেঞ্জ যা আমি নিতেও বেশ উপভোগ করি।

অভিনয়ের বাইরে গানও করেন...

অভিনয়ের পাশাপাশি গানকে খুব ভালোবাসি। একজন যোগ্য অভিনেতা হওয়ার ক্ষেত্রে গানটা অবশ্যই প্রয়োজনীয়। অভিনয়ের অংশ হিসেবেই গানের প্রতি আমার ঝোঁক। শুধু গানেই নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখি নি। এছাড়াও আমি দোতারা সহ নানান বাদ্যযন্ত্রও বাজিয়ে থাকি। ছোট থেকেই গানের প্রতি ভালোবাসা ছিলো, এখন গানে সময় দিতে গিয়ে নিজেকে নতুনভাবে খুঁজে পাচ্ছি। বাংলাদেশের বেশ কয়েকজনের গানও অনুসরণ করা হয়।

বাংলাদেশের শিল্পীদের গান...

অনেকের গানই নিয়মিত শোনা হয়। সবার নাম এই মুহূর্তে মনে পড়ছেনা। নিয়মিত শোনা হয় আইয়ুব বাচ্চু, অর্ণব , সাঈদূর সুমন এবং জলের গান। সবাই খুব প্রিয় মানুষ। এদের গান থেকে শেখার চেষ্টা থাকে সবসময়।

অভিনয় নাকি গান...

অবশ্যই অভিনয়, এটাই আমার প্রধান ভালোবাসার জায়গা। অভিনয়টাকেই নিজের ভবিষ্যত পরিকল্পনা হিসেবে রেখে কাজ করছি। অভিনয়ের উপর উচ্চতর ডিগ্রি নেওয়ারও খুব ইচ্ছা আছে। আমার বর্তমান পড়ালেখাটাও এটি নিয়েই। কলকাতার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে পারফর্মিং আর্ট নিয়ে পড়াশোনা করছি ২য় বর্ষে। নিজেকে টলিউডে পুরোপুরিভাবে মেলে ধরে বলিউডেও নিজের সেরাটা দেওয়ার ইচ্ছে। সাথে অবশ্যই বাংলাদেশেও পরিকল্পনা এবং ইচ্ছা দুটোই রয়েছে।

বাংলাদেশে কাজ করার কথা ছিলো...

বাংলাদেশের সিনেমাতে কাজ করাটা অবশ্যই আমার জন্য বড় অর্জন হবে। বেশ কয়েকদিন আগে বাংলাদেশি একটি সিনেমার জন্য কথা হয়েছিলো তবে তা বেশিদূর এগোই নি। আশা করি খুব দ্রুত এরকম কিছু বাস্তবায়ন হবে। বাংলাদেশ সবসময় আমার পছন্দের জায়গা। দেশটাকে নিয়ে অনেক জেনেছি এবং দেখেছি। অনেক প্রিয় মানুষও আছে। যদিও এখনো যাওয়া হয়নি। ইচ্ছে এবং আগ্রহ দুইটিই রয়েছে সেখানে কাজ করার ব্যাপারে।

আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
best