ঢাকা, শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমায় প্রয়াত অভিনেতা সায়েমকে স্মরণ সিয়ামের

  ইমরুল নূর

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৪৯  
আপডেট :
 ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:৫৮

‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমায় প্রয়াত অভিনেতা সায়েমকে স্মরণ সিয়ামের
ইমরুল নূর

‘যেই মানুষটা সেটের মধ্যে সবাইকে সারাক্ষণ হাসি-আনন্দে মাতিয়ে রাখতেন তিনি এখন আমাদের পাশে নেই, এটা ভাবতেই খারাপ লাগে। উনি যেখানেই থাকুক, আল্লাহ উনাকে বেহেশত নসীব করুক।’ নিজের অভিনীত প্রথম নাটকের সহশিল্পী প্রয়াত সায়েম সাদাতের প্রসঙ্গে এমন কথা বলেন চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ।

আগামীকাল শুক্রবার অর্থাৎ ২৩ সেপ্টেম্বর দেশের ৩৫ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘অপারেশন সুন্দরবন’। র‍্যাবের দুঃসাহসিক অভিযান নিয়ে নির্মিত এবং ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত নির্মাতা দীপংকর দীপন পরিচালিত এই সিনেমায় মেজর সায়েম সাদাতের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিয়াম। সিনেমায় ‘মেজর সায়েম সাদাত’ চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে প্রয়াত অভিনেতা সায়েমকে স্মরণ করেছেন সিয়াম।

২০১৩ সালে রেদওয়ান রনি পরিচালিত ‘ভালোবাসা ১০১’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য শোবিজে আত্মপ্রকাশ করেন সিয়াম। নিজের অভিনীত প্রথম নাটকে সহশিল্পী হিসেবে যারাই ছিলেন তাদের সবার সঙ্গেই সিয়ামের খুব ভালো সম্পর্ক। সেই সুবাদে তরুণ সম্ভাবনাময়ী অভিনেতা সায়েম সাদাতের সঙ্গে সিয়ামের পরিচয় এবং হৃদ্যতা। এরপর ২০১৫ সালের মে মাসে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন সায়েম এবং বিয়ের দশম দিনের মাথায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান।

‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমার মেজর সায়েম চরিত্র প্রসঙ্গে চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ বলেন, ‘আমি যখন ‘অপারেশন সুন্দরবন’ স্ক্রিপ্ট পাই এবং সেটা নিয়ে রিহার্সেল করি তখন ছবিটির পরিচালক দীপন দাদা জানান, আমার চরিত্রটির নাম মেজর সায়েম। তখন আমি উনার কাছে জানতে চাইলাম, এই চরিত্রটির পুরো নাম কি! তখন তিনি জানালেন, পুরো নাম এখনও ঠিক করা হয়নি।

সেসময় আমি বিনয়ের সঙ্গে উনার কাছে প্রস্তাব রাখলাম যে, দাদা নামটা কি কোনভাবে মেজর সায়েম সাদাত রাখা যায় কি না! এরপর তিনি তাতে সম্মতি দেন।’

‘আমি যখন এই নামটা ক্যারি করছিলাম তখন আমার মধ্যে অন্যরকম এক অনুভূতি অনুভূত হচ্ছিলো। সেটে সবাই যখন আমাকে সায়েম সাদাত নামে ডাকতো, আমার কাছে খুবই ভালো লাগতো। কারণ সেই মুহূর্তটাতে আমি সায়েম ভাইয়াকে অনুভব করতাম, আমার চোখের সামনে তার চেহারাটা ভাসতো সবসময়।’- যোগ করেন ‘পোড়ামন ২’, ‘দহন’, ‘শান’ খ্যাত এই চিত্রতারকা।

তিনি আরও বলেন, ‘আমার প্রথম নাটক ‘ভালোবাসা ১০১’ এ সায়েম সাদাত ভাইয়া আমার সহশিল্পী ছিলেন। উনি আমার চেয়ে সিনিয়র ছিলেন। যেহেতু প্রথম কাজ ছিলো তাই আমাদের স্মৃতিও অনেক। তিনি সারাক্ষণই হাসি আনন্দে পুরো সেট মাতিয়ে রাখতেন। অনেক ফান লাভিং ছিলেন। আমরা খুব উপভোগ করতাম সে সময়গুলো। আমাদের একসঙ্গে একটাই কাজ করা হয়েছিলো। কাজটি করার বছর দেড়েক পরেই হঠাৎ করে শুনতে পেলাম সায়েম ভাইয়া আর আমাদের মাঝে নেই। এটা শোনার পর আমি খুবই শকড হয়েছিলাম। উনি মারা যাওয়ার ১০ দিন আগে বিয়ে করেছিলেন। অভিনয়ের পাশাপাশি ইভেন্ট প্ল্যানার হিসেবে কাজ করতেন।

এখনও বিভিন্ন সময়ে উনার কথা মনে হয় আমার। আমার স্মৃতিতে ভাসে সেসব দিনগুলো। এখন তার জন্য দোয়া করা ছাড়া তো আমাদের আর কিছু করার নেই। ‘অপারেশন সুন্দরবন’ সিনেমার কাজটি করার সময়ে চরিত্রের নামে যখন সবাই আমাকে ডাকতো তখন উনার চেহারাটাই আমার চোখের সামনে ভেসে উঠতো। তাকে মনে রাখার জন্য আমার জায়গা থেকে এতটুকু চেষ্টা, যার কারণে চরিত্রের নামটিকে আমি মেজর সায়েম সাদাত রাখতে বলি। কে জানে, বেঁচে থাকলে তিনি হয়তো আজকে এই চরিত্রটা করতেন কিংবা মেজরও হতে পারতেন! তার পরিবারের কেউ যদি ছবিটা দেখে তাহলে তাকে একটু হলেও অনুভব করতে পারবে যে, নামটি বেঁচে আছে!’

সিয়াম জানান, প্রয়াত অভিনেতা সায়েম সাদাতের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন এবং তাদেরকে স্ব-পরিবারে সিনেমাটি দেখার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সিয়াম বলেন, নাঈম আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। আমি তাদেরকে স্ব-পরিবারে সিনেমাটি দেখার আমন্ত্রণ জানিয়েছি।

র‍্যাব ওয়েলফেয়ার কো-অপারেটিভ সোসাইটির প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে ‘অপারেশন সুন্দরবন’। সুন্দরবনকে জলদস্যুমুক্ত করতে র‍্যাবের দুঃসাহসিক অভিযান ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এখানে। তারকাবহুল এ সিনেমাতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক রিয়াজ, সিয়াম, রোশান, নুসরাত ফারিয়া, দর্শনা বণিক, সামিনা বাসার, রাইসুল ইসলাম আসাদ, তাসকিন আহমেদ, রনক হাসান, শতাব্দী ওয়াদুদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত