ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৮ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০২০, ২০:২১

প্রিন্ট

প্রকাশিত খবরের জন্য দুঃখ প্রকাশ

প্রকাশিত খবরের জন্য দুঃখ প্রকাশ

জার্নাল ডেস্ক

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক প্রফেসর আবদুল আউয়ালকে নিয়ে গত ২৭ আগস্ট, ২০২০ তারিখে ‘শিক্ষিত হয়ে লাভ কী, যদি...’ শিরোনামে বাংলাদেশ জার্নালে একটি খবর প্রকাশিত হয়। দেশের প্রথম সারির অনলাইন পোর্টালসহ ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এ খবরটি প্রকাশ করা হয়। যেখানে সহানুভূতির সঙ্গে প্রফেসর আউয়ালের অবসরপ্রাপ্ত জীবনের বঞ্চনা ও কষ্টের বিষয় তথ্য তুলে ধরা হয়।

তবে প্রকাশিত খবরটির বিষয়ে প্রফেসর আউয়াল নিজে ও তার সন্তানরা আপত্তি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে গত ২০ অক্টোবর ১৮টি অনলাইন ও গণমাধ্যম এবং আট ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রফেসর আবদুল আউয়াল, মো. রাকিব ইফতেখার হাসান, মিসেস রেজিনা ইয়াসমিন, জনাব রানার পক্ষে কাউন্সেল ল’ পার্টনার্স-এর ব্যারিস্টার মো. হাফিজুর রহমান খান লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন।

নোটিশে প্রকাশিত খবরের তথ্যের সত্যতার বিষয়ে আপত্তিসহ মানহানিকর হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

খবরটির বিষয়ে বাংলাদেশ জার্নালের বক্তব্য তুলে ধরা হলো— ১. প্রকাশিত খবরটি ফেসবুকে ছড়ানো/ভাইরাল হওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জার্নালের ‘সোশ্যাল মিডিয়া’ বিভাগে প্রকাশ করা হয়। সম্প্রতি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারী নির্যাতন, বরগুনার রিফাত হত্যাকাণ্ড, সিলেটের এমসি কলেজের ধর্ষণসহ দেশে ঘটে যাওয়া বহু আলোচিত ঘটনাই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গণমাধ্যমে উঠে এসেছে। সমাজে নির্যাতিত ও অসহায়দের ন্যায়বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে যা সহায়ক হচ্ছে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া বিভাগে অন্যান্যের মতো প্রফেসর আবদুল আউয়াল বিষয়ক খবরটিও প্রকাশ করা হয়।

২. প্রকাশ করা খবরটিতে ঘটনায় অভিযুক্ত বা দায়ী ব্যক্তিদের বক্তব্য নেয়া প্রয়োজন ছিলো। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার তথ্যের ভিত্তিতে খবরটি প্রকাশের কারণে বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া যিনি খবরটি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংগ্রহ করেছিলেন তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ জার্নালের সঙ্গে নেই। এদিকে খবরটি ইতোমধ্যে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

৩. বাংলাদেশ জার্নাল ব্যক্তি বা সমষ্টির সম্মান ও মর্যাদাকে অক্ষুণ্ন রেখেই সংবাদ প্রকাশ করে পাঠকমহলে বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করেছে। প্রকাশিত এ খবরটি ইচ্ছাকৃত বা সচেতনভাবে করা হয়নি।

৪. খবর প্রকাশের কারণে প্রফেসর আবদুল আউয়াল, তার পরিবার ও সন্তানসহ সংশ্লিষ্টদের সম্মানহানি হয়েছে বলে যে দাবি করা হয়েছে তার জন্য বাংলাদেশ জার্নাল আন্তরিকভাবে দুঃখিত। আগামীতে যাতে এ ধরনের কোনো ঘটনা না ঘটে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি থাকবে।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত