ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩১ মে ২০২০, ১৭:০৯

প্রিন্ট

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নতুন তারিখ নিয়ে আশাবাদী ইস্তাম্বুল

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নতুন তারিখ নিয়ে আশাবাদী ইস্তাম্বুল
স্পোর্টস ডেস্ক

স্টিভেন গেরার্ডকে লিভারপুলের কিংবদন্তী হিসেবে আখ্যা দেবার ম্যাচটির ১৫ বছর পর তুরষ্কের সামনে সুযোগ এসেছিল দ্বিতীয় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল আয়োজনের। পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত হতো এবারের মৌসুমের ফাইনালটি। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে পুরো বিশ্বের সাথে সাথে থমকে গেছে ফুটবলের সব ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাও।

গত ২৩ মার্চ করোনার কারণে পরবর্তী নোটিশ দেবার আগ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সব ম্যাচ বাতিলের ঘোষণা দেয় উয়েফা। এখনো পর্যন্ত ইউরোপের সর্বোচ্চ এই ক্লাব আসরের নতুন কোন তারিখ চূড়ান্ত হয়নি। তবে টার্কিশ ফুটবল ফেডারেশন (টিএফএফ) আশা করছে আগস্টে এই ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। এই মাসে তুরষ্কে সবচেয়ে বেশী গরম ও আদ্র আবহাওয়া বিরাজ করে।

কিন্তু এই সময়েরর আগে তুরষ্কের ফুটবল সমর্থকরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের জন্য মুখিয়ে ছিল। এখনো অবশ্য তারা ফাইনালটির ব্যপারে আশাবাদী। ইস্তাম্বুলের জায়ান্ট গ্যালাতাসারের প্রধান ফ্যান গ্রুপের সদস্য আতাকান বোডান মনে করেন বুন্দেসলিগা ও বেলারুশিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের ম্যাচ যেহেতু শুরু হয়েছে সে কারণে চ্যাম্পিয়ন্স লিগও পুনরায় মাঠে গড়াবে। ফাইনাল ম্যাচটি দেখার জন্য তুরষ্কের ফুটবল পাগল মানুষ অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছে।

২০০৫ সালে ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত ফাইনালের স্মৃতি তুরষ্কের মানুষের কাছে এখনো স্মরণীয় হয়ে আছে। বিরতির আগে এসি মিলানের কাছে ০-৩ গোলে পিছিয়ে থাকার পরে দারুনভাবে ম্যাচে ফিরে এসে পেনাল্টি শ্যুট আউটে শিরোপা ছিনিয়ে নিয়েছিল লিভারপুল। এ বছরের ফাইনালটিও তুরষ্কের সেই একই স্টেডিয়াম আতার্তুক অলিম্পিক স্টেডিয়ামেই অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল।

বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পুনরায় শুরু নিয়েই শঙ্কা দেখা দিয়েছে। শেষ ১৬’র প্রথম লেগের প্রতিযোগিতার পর করোনার কারণে লিগ বন্ধ হয়ে যায়। এমনও হতে পারে নক আউট পর্বে আর কোন দ্বিতীয় লেগ থাকলো না কিংবা ‘ফাইনাল ফোর’ দিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ হলো।

টিএফএফ জানিয়েছে, ‘পরিস্থিতি যাই হোক না কেন ফাইনাল অথবা মিনি টুর্নামেন্ট, আমরা সবকিছুতেই প্রস্তুত আছি।’

করোনা পরিস্থিতি বেশ ভালভাবেই মোকাবেলা করেছে আঙ্কারা। এ পর্যন্ত দেশটিতে ১ লাখ ৬০ হাজার আক্রান্ত ও সাড়ে চার হাজার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অবকাঠামোগত দিক দিয়ে বিশে^র অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন শহর হিসেবে ইস্তাম্বুলকে বিবেচনা করা হয়।

আতার্তুক স্টেডিয়াম তুরষ্কের তিনটি ক্লাব গ্যালাতাসারে, ফেনারব্যাচ ও বেসিকটাসের হোম গ্রাউন্ড। এর আগে এই স্টেডিয়ামে উয়েফা সুপার কাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগস্টে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে চেলসিকে হারিয়ে শিরোপা লাভ করেছিল লিভারপুল।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত