ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ১১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৫ মে ২০২০, ১৯:৪১

প্রিন্ট

ঈদের নামাজ শেষে ফেরা হলো না দুই বন্ধুর

ঈদের নামাজ শেষে ফেরা হলো না দুই বন্ধুর
কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

মোটরসাইকেলে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার তিন কিশোর নানার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানা এলাকায় দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। এ সময় দুইজন নিহত হয়েছে ও একজন গুরুতর আহত হয়েছে।

সোমবার বিকাল আনুমানিক আড়াইটার দিকে পাকুন্দিয়া উপজেলার পাশ দিয়ে প্রবাহিত ব্রহ্মপুত্র নদের ওপরে গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার টাঙ্গাবো ফাজিল মাদরাসামোড়ে এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনায় নিহতেরা হচ্ছে, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার গান্ধারচর গ্রামের হুমায়ুন কবিরের ছেলে মো. অনিক (১৬), মো. মোস্তফার ছেলে মো. রিয়াদ (১৮) এবং আবদুর রশিদের ছেলে আশিক (১৪)।

এদের মধ্যে অনিক ও রিয়াদ ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। আশিককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, ঈদুল ফিতরের জামাতে নামাজের পর মোটরসাইকেল নিয়ে এই তিন বন্ধু নানার বাড়িতে বেড়াতে যায়। ব্রহ্মপুত্র নদ পার হয়ে দুপুর আড়াইটার দিকে পার্শ্ববর্তী ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানা এলাকার টাঙ্গাবো ফাজিল মাদ্রাসামোড় এলাকা অতিক্রমের সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়।

এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায় অনিক ও রিয়াদ। অপর গুরুতর আহত কিশোর আশিককে আশঙ্কাজনক অবস্হায় গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অনেক চেষ্টা করেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন সম্ভব হয়নি।

পাগলা থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পাকুন্দিয়া উপজেলার ওই তিন কিশোর একটি মোটরসাইকেলযোগে গফরগাঁও উপজেলায় একজনের নানির বাড়িতে বেড়ানোর পর ফিরে যাবার সময় টাঙ্গাবো ফাজিল মাদরাসা মোড়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খায়।

ওসি বলেন, এ সময় ঘটনাস্থলেই অনিক ও রিয়াদ নামে দুই কিশোর নিহত এবং আশিক নামে এক কিশোর গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য আশঙ্কাজনক অবস্থায় গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে পাঠানো হয়েছিল।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত