ঢাকা, রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর ২০২০, ২১:৩৮

প্রিন্ট

মাদক ব্যবসা নিয়ে বিরোধে যুবক খুন

মাদক ব্যবসা নিয়ে বিরোধে যুবক খুন
গাজীপুর প্রতিনিধি

পূর্ব শত্রুতার জেরে গাজীপুরের টঙ্গীতে মাদক ব্যবসায়ীর ছুরিকাঘাতে অপর মাদক ব্যবসায়ী খুন হয়েছে। পুলিশ খুনে জড়িত থাকার অভিযোগে জয় নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে।

শুক্রবার দুপুরে টঙ্গীর সাতাইশ গুশুলিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আপন (৩০) ময়মনসিংহের আজমপাড়া এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে। তিনি সাতাইশ ব্যাংকপাড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় স্বপরিবারে থাকতেন।

টঙ্গী পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. বিল্লাল নিহতের লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠান। শুক্রবার বিকেলে সাতাইশ মধ্যপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে জয়কে আটক ও খুনে ব্যবহৃত ছোরা উদ্ধার করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, নিহত আপন একজন মাদকসেবী। পুলিশের সোর্স পরিচয়ে দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় বাসিন্দা সুমন গুশুলিয়া এলাকায় জয়, ফাহিম, জাহাঙ্গীর, জলিল ও সবুজকে নিয়ে মাদক ব্যবসা করে আসছে। এই মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করে আপনের সঙ্গে বিরোধ চলছিল সুমন ও জয়ের। এ নিয়ে পূর্বে দুই গ্রুপের মধ্যে বেশ কয়েকবার সংঘর্ষ হয়েছে। এর জেরে শুত্রবার দুপুরে প্রতিপক্ষ ওই মাদক ব্যবসায়ীরা আপনকে একা পেয়ে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।

পরে এলাকাবাসী আপনকে উদ্ধার করে টঙ্গীর গুশুলিয়া ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের স্ত্রী লাকি আক্তার বলেন, আমার স্বামী কিছুদিন মাদক সেবন করেছে। বর্তমানে সেবন করেছে তা ছেড়ে দিয়েছিল। পুলিশের সোর্স সুমন আমার স্বামীকে পুলিশকে ধরিয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা চাইতো। গত সপ্তাতে পুলিশ নিয়ে আমাদের বাসায় যায় সুমন। এ সময় আমার স্বামীর সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় সুমনের।

টঙ্গী পশ্চিম থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. এমদাদুল হক জানান, নিহত আপন মাদক সেবন এবং মাদকের ব্যবসা করতেন। আপন ও জয়ের মধ্যে মাদকের টাকা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ বিরোধের জেরেই ওই খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। আপন খুনে জড়িতদের গ্রেপ্তারে জন্য অভিযান চলছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত