ঢাকা, রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৬ অক্টোবর ২০২০, ২২:৪১

প্রিন্ট

হাতের রঙ না মুছতেই পুত্রবধূকে খুন করলো শাশুড়ি!

হাতের রঙ না মুছতেই পুত্রবধূকে খুন করলো শাশুড়ি!
প্রতীকী ছবি
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

গায়ে মেহেদীর রঙ এখনও মুছেনি; মাত্র ১৫দিন পূর্বে বিবাহিত নববধূ ভাবনা খাতুনকে (২৩) পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শাশুড়ির বিরুদ্ধে। শাশুড়ি ঝরণা খাতুনকে (পূত্রবধূ) হত্যায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে ভেড়ামারা থানা পুলিশ।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়া ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ঠাকুরদৌলতপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ভাবনা খাতুন ঠাকুরদৌলতপুর গ্রামের বাসিন্দা মহিবুল ইসলামের ছেলে সোহেল এর স্ত্রী।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ১৫ দিন আগে সোহেল - ভাবনার বিয়ে হয়। এরইমধ্যে পারিবারিক কলোহের জেরে দুপুরে শাশুড়ি ঝরণা খাতুনের সাথে বাক-বিতণ্ডা হয় ভাবনা খাতুনের।

এসময় ঝরনা খাতুন পূত্রবধূ ভাবনা খাতুনের গলা টিপে ধরেন। আশপাশের লোকজন ঠেকাতে গেলেও পাত্তা দেননি শাশুড়ি ঝরণা। একপর্যায়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান ভাবনা।

হত্যাকাণ্ডের এই ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে ঝরণার পরিবার গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দিয়ে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশীদের। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে স্থানীয়রা তাৎক্ষনিক পুলিশে সংবাদ দেয়।

উপজেলার বাহাদুরপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই জাহাঙ্গীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ জার্নালকে জানান, সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে। ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে। ময়না ততন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। নিহত ভাবনা খাতুনের শ্বশুরবাড়ির লোকজন নিজেদের নির্দোষ দাবি করছেন বলেও জানায় এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত