ঢাকা, সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৫১

প্রিন্ট

১২ কেজি পেঁয়াজ না নিলে দিচ্ছে না টিসিবির পণ্য!

১২ কেজি পেঁয়াজ না নিলে দিচ্ছে না টিসিবির পণ্য!
ছবি- প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

জনপ্রতি ১২ কেজি পেঁয়াজ নিতে হবে। তা না হলে তেল, চিনি ও ডাল দেয়া যাবে না। টিসিবির পণ্য বিক্রয়ে ৪৪০ টাকার প্যাকেজ করা হয়েছে। ওই প্যাকেজে বাধ্যতামূলক ১২ কেজি বিদেশি পেঁয়াজ, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি ডাল ও ২ লিটার সয়াবিন তেল নিতে হবে।

শুক্রবার বিকালে ট্রাকে করে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে আসা ঝিনাইদহের মানিক ট্রেডার্স নামে ডিলারের লোকজন এমন ঘোষণা দিয়ে এক 'পেঁয়াজকাণ্ড' ঘটিয়েছেন।

তবে কিছু সময় পর ক্রেতারা বিষয়টি কালীগঞ্জ ইউএনওকে অবহিত করে। বিষয়টি আঁচ করতে পেরেই অল্প কিছু পণ্য বিক্রি করে তারা ট্রাক নিয়ে চলে যায়। এভাবেই টিসিবির ডিলাররা পণ্য বিক্রিতে সাধারণ ক্রেতাদের সাথে প্রতারণা করে চলেছে।

ভুক্তভোগীদের মধ্যে ফিরোজ আহম্মেদ নামে এক ক্রেতা জানান, শুক্রবার বিকালে কালীগঞ্জ শহরের বৈশাখী মোড়ে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে আসে ঝিনাইদহের ডিলার মানিক ট্রেডাস। এ সময় তারা প্রতিজন ক্রেতাকে বাধ্যতামূলক ১২ কেজি পেঁয়াজ নিতে হবে বলে জানায়। যদি কেউ পেঁয়াজ না নেয় তাহলে তাদের কাছে অন্যান্য পণ্য তেল, চিনি ও ডাল বিক্রি করবে না বলে ঘোষণা দেয়।

এসব কথা শুনে উপস্থিত ক্রেতাদের মধ্যে অনেকেই পণ্য না নিয়েই খালি হাতে ফিরে যায়। কিন্তু কেউ কেউ পণ্য না কিনতে পেরে ডিলারের লোকজনের সাথে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন।

এমন পরিস্থিতি ও জটলা দেখে সেখানে এগিয়ে যান গণমাধ্যমের এক কর্মী। তিনি তাৎক্ষণিক কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ফোন করে জানতে পারেন, জনপ্রতি ৫ কেজি পণ্য বিক্রির নিয়ম রয়েছে। পণ্য বিক্রয়ে প্যাকেজ বাধ্যতামূলক করা হয়নি।

এরই মধ্যে প্রশাসনকে অবহতির বিষয়টি আঁচ করতে পেরে ডিলারের লোকজন তড়িঘড়ি করে তাদের কিছু পণ্য ক্রেতাকে দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চলে যান।

বিষয়টি নিয়ে টিসিবির ডিলার ঝিনাইদহের মানিক ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী শরিফুল ইসলাম বলেন, পেঁয়াজ বিক্রি না হওয়াতে গোডাউনে থেকে নষ্ট হচ্ছে। এজন্য আমরা ক্রেতাদের পেঁয়াজ নিতে ৪৪০ টাকার প্যাকেজ করেছি।

ঝিনাইদহ শহরের টিসিবির ডিলার হয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা শহরে পণ্য বিক্রি করার অনুমতি আছে কী না- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, টিসিবির কর্মকর্তা রানা সাহেব তাকে বাইরের উপজেলাতে গিয়ে পণ্য বিক্রির অনুমতি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সূবর্না রানী সাহা জানান, একজন ক্রেতার নিকট ৫ কেজির বেশি টিসিবির পণ্য বিক্রি করা যাবে না। প্রতি ক্রেতাদের ১২ কেজি পেঁয়াজ নিতে হবে, এমন কোনো নিয়ম নেই। এমন অনিয়মের বিষয়ে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত