ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৪ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৭

প্রিন্ট

অটিজম আক্রান্ত ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার আহ্বান

অটিজম আক্রান্ত ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার আহ্বান
অটিজম আক্রান্ত ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তির স্বাস্থ্য ঝুঁকি শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা সোমবার অনুষ্ঠিত হয়।

জার্নাল ডেস্ক

বর্তমান সরকার অটিজম আক্রান্ত শিশুদের জন্য নানামুখী উন্নয়মূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থানের ব্যবস্থা সহ বিভিন্ন বিষয় প্রাধান্য পেয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় নিউরো-ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট আইন ২০১৩ এবং এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন নামে দুটি আইন পাশ করা হয়েছে। তবে আইনগুলোর সঠিক বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে কিছুটা ধীরগতির কথা বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিশেষ করে করোনার এই সময়ে অটিজম আক্রান্ত ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা সকল ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতার শিকার হচ্ছেন। তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা প্রয়োজন।

সোমবার কারফ্রি সিটিস এলায়েন্স ও ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট যৌথভাবে ‘কোভিড-১৯: অটিজম আক্রান্ত ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তির স্বাস্থ্য ঝুঁকি’ শীর্ষক একটি ভার্চুয়াল আলোচনা সভা আয়োজন করে। সভায় এসব মতামত তুলে ধরা হয়।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্যারেন্টস এডুকেটর এর জেনারেল ফিজিশিয়ান ডা. আইরিন বিনতে আজাদ, ওমেন উইথ ডিজেবিলিটিস ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন এর নির্বাহী পরিচালক আশরাফুন নাহার মিষ্টি, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন এর প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর নাজরানা ইয়াসমিন হিরা এবং হেলথ্ ব্রিজ ফাউন্ডেশন অব কানাডা এর আঞ্চলিক পরিচালক দেবরা ইফরইমসন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর কমিউনিকেশন অফিসার শানজিদা আক্তার।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, করোনাকালীন সময়ে আমরা কেউই ভালো অবস্থায় নেই, বিশেষ করে অটিজম আক্রান্ত শিশু ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা আরো বেশি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। প্রতিবন্ধী ব্যক্তি এবং অটিজম আক্রান্ত ব্যক্তিদের অনেকেই বিভিন্ন রকমের থেরাপির প্রয়োজন হয় থাকে সেগুলো আসলে ফিজিক্যালি, যা বন্ধ রয়েছে। সেক্ষেত্রে প্রতিবন্ধী এবং অটিজম আক্রান্ত মানুষেরা নানা সমস্যায় ভুগছেন। স্বাস্থ্য ঝুঁকি অনেকেই রয়েছে তবে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা বেশি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছে কারণ তারা যে কোনভাবেই নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারেনা।

করোনা কালীন সময়ে সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলো বিভিন্ন রকমের প্রচারণা চালাচ্ছে কিন্তু সেখানে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কিভাবে করোনার ঝুঁকি থেকে রক্ষা করা যায় এবং তাদের স্বাস্থ্য সেবা কিভাবে প্রদান করা যায় সেই জায়গাটাতে আসলে কোনো সুস্পষ্ট বার্তা নেই বলে আলোচকরা জানান।

সভায় বলা হয়, বর্তমান সময়ে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা কর্মক্ষেত্রেও সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন তার মধ্যে চাকরি হারানোর ভয় এবং নিজের কর্মস্থানে যেতেও কিন্তু তার পরিবহন ব্যয় দ্বিগুণ। তাই প্রয়োজন একটি সমন্বিত গনপরিবহন ব্যবস্থার, যেখানে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা যাতায়াতের ক্ষেত্রে তাদের অধিকার নিশ্চিত হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত