ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮ আপডেট : ৮ মিনিট আগে

প্রকাশ : ১৪ মে ২০২১, ০৪:০২

প্রিন্ট

স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী আটক

স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী আটক

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় স্ত্রীর মৃত্যুকে ঘিরে রহস্য তৈরি হওয়ায় স্বামী আবু বক্কর ছিদ্দিককে (৪৬) আটক করেছে পুলিশ। তবে আটক আবু বক্করের দাবি, তার স্ত্রীর স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চন্ডিগড় ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে বসতঘর থেকে দিলারা খাতুনের (৩৬) মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। পুলিশের ধারণা, বুধবার দিবাগত রাত কোন এক সময় ঘটনা ঘটে থাকতে পারে এবং দিলারার মৃত্যুর পেছনে রহস্য থাকতে পারে।

আটক নিহতের স্বামী আবু বক্কর ছিদ্দিক ওই গ্রামের মৃত আশকর আলীর ছেলে এবং পেশায় স্থানীয়ভাবে দর্জির কাজসহ গ্রাম্য ডাক্তারি করেন। তার দাবি, তার স্ত্রী দিলারা খাতুনের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।

নিহত দিলারা খাতুন ছিদ্দিকের তৃতীয় স্ত্রী ও তার বাবার বাড়ি কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলায়। তাদের সংসারে প্রায় দুই বছর বয়সি একজন মেয়ে সন্তান রয়েছে।

ছিদ্দিকের আগের সংসারে আরও চার সন্তানের মধ্যে ইতোমধ্যে এক মেয়েকে বিয়েও দিয়েছেন স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

দুর্গাপুর থানার ওসি মো. শাহনুর এ আলম বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ৮টার দিকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দিলারা খাতুনকে বিছানায় পড়ে থাকতে দেখতে পায়। স্থানীয়দের ভাষ্যমতে বিষ প্রয়োগের ঘটনা হতে পারে। নিহতের স্বামী ও শ্বাশুড়ীর কথা বার্তায় অসামঞ্জস্যতা থাকায় ছিদ্দিককে আটক করা হয়েছে এবং নিহতের শ্বাশুড়ীকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা আনা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নিহতের স্বামী তার স্ত্রীর স্বাভাবিক মৃত্যু দাবি করছে। কিন্তু তার ঘরের ভেতর থেকে বিষের বোতল পাওয়া গেছে। বিষক্রিয়ার মাধ্যমে ঘটনা ঘটাতে পারে। আবার গ্রাম্য ডাক্তারি করায় বিষ ইনজেক্ট করে থাকতে পারে। দাম্পত্য কলহ আগে থেকেই ছিল এবং আগে এক স্ত্রীকে মেরে ফেলা ও আরেক স্ত্রীকে তালাক দিয়েছে ছিদ্দিক স্থানীয়ভাবে কথিত রয়েছে।

লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে দুপুরের দিকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ বের হবে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ জার্নাল/আর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত