ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : ২৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৬ জুন ২০১৯, ১৯:১২

প্রিন্ট

ঈদের চাঁদ নিয়ে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া

ঈদের চাঁদ নিয়ে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া
জার্নাল ডেস্ক

শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির দুই দফা ঘোষণায় নানারকম মন্তব্য বা স্ট্যাটাসে সরগরম হয়ে উঠেছে ফেসবুকসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া।

মঙ্গলবার চাঁদ দেখা কমিটি দেড় ঘণ্টার বেশি সময় ধরে বৈঠকের পর বাংলাদেশের ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ জানিয়েছিলেন যে, শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে বৃহস্পতিবার হবে ঈদুল ফিতর।

কিন্তু প্রায় দুই ঘণ্টা পরেই তিনি আরেকটি সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, দেশের আকাশে চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার ঈদ উদযাপিত হবে।

যা ঘটেছিল ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেছেন, প্রথমে যখন তারা বৈঠক করেন, তখন জেলার কর্মকর্তা, আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলাপ করেও তারা চাঁদ দেখার কোনো খবর পাননি। তিনি বলেন, সারা দেশে খোঁজখবর নিয়ে জানতে পারলাম, এখন পর্যন্ত ঈদের চাঁদ কোথাও দেখা যায়নি। এরপরে তারাবির নামাজও পড়া হয়।

কিন্তু এই ঘোষণা প্রচারিত হওয়ার পরেই কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী ও ভূরুঙ্গামারী উপজেলা এবং লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার অনেক ব্যক্তি স্থানীয় নির্বাহী কর্মকর্তাদের জানান যে, তারা চাঁদ দেখতে পেয়েছেন।

এরপর তারা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট বিভাগের সচিবদের অবহিত করেন। চাঁদ দেখা কমিটিতে বিষয়টি জানানো হয়। রাতে পুনরায় কমিটির সদস্যরা বৈঠকে বসে বুধবার ঈদ উদযাপনের সিদ্ধান্ত নেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলছেন, শরিয়ত মোতাবেক যদি কমপক্ষে দুইজন ইমানদার ব্যক্তি চাঁদ দেখার ঘোষণা দেন, তাহলে সেই ঘোষণা মেনে নেয়া উচিত। তাই পরবর্তী সময়ে সংশোধিত ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

বুধবার ঈদ হবে, এই ঘোষণা আসার পর থেকেই ফেসবুকে নানারকম মন্তব্য আসতে শুরু করে।

মাহবুবা ডিনা মন্তব্য করেছেন, ঘুমিয়ে গেছিলাম। মিথুন ঠেলে তুলে বললো, কাল নাকি ঈদ! ঈদ মোবারক সবাইকে!!

ফখরুল করিম লিখেছেন, আজকে রাতের টিকিট কনফার্ম করার পর, আবার টিকেট ক্যান্সেল করালাম। এখন আবার বলছে কালকে ঈদ।

আবির আহমেদ লিখেছেন, ঈদের জামাতে যাওয়ার আগে আরেকবার টিভি দেখে যাবেন। বলা যায় না, আবার চাঁদ দেখা যায় নাই বলে স্থগিত হয়ে যেতে পারে।

মোহাম্মদ মানিকের মন্তব্য, আমি যতদূর জানতাম, চাঁদ দেখা যায় বিকালের দিকে, কিন্তু আজকাল রাত ১১টা বা ১২টার দিকেও দেখা যায় জানা ছিল না। মনে হয় চাঁদ জ্যামে ছিল, তাই বাংলাদেশে পৌঁছাতে দেরি হয়েছে।

আবির খান মন্তব্য করেছেন, আমার বাসায় রাত ৯টার খবর দেখেছে, বুধবার ঈদ হচ্ছে না। এরপর আর কোন খবর দেখেনি। সবাই ১০টার পর শুয়ে পড়েছে, রাতে সেহরি খেয়েছে। সব কিছু স্বাভাবিক, সকাল ৯টায় জানতে পারে আজ ঈদ। এখন তাড়াহুড়া করে রান্নার কাজে অনেক সমস্যা হচ্ছে।

কামরুল ইসলাম লিখন লিখেছেন, কেউ কি শুনেছেন রাত ১১টায় আকাশে চাঁদ ওঠে। আমার জীবনে এই শুনলাম। সূত্র: বিবিসি

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত