ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৩৯

প্রিন্ট

মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন প্রাথমিক শিক্ষিকা

মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন প্রাথমিক শিক্ষিকা
অনলাইন ডেস্ক

নরসিংদীর শিবপুরে যাত্রীবাহী একটি বাসের চাপায় পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছাত্রী লামিয়া আক্তারসহ একজন অটোরিকশা চালক মারা গেছেন। এসময় তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় নিহত লামিয়ার মা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আসমউল হুসনাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে

নিহতরা হলেন-শিবপুর উপজেলার বৈলাব গ্রামের লতিফ মিয়ার ছেলে সিএনজি চালক রিপন মিয়া (৩৫) ও শিবপুর শহীদ আসাদ কলিজিয়েট গার্লস হাই স্কুলের সহকারী শিক্ষক গাজী হারুন অর রশিদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া মেয়ে লামিয়া আক্তার (১৮)।

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) রাত ৮টায় নরসিংদী-মনোহরদী সড়কের শিবপুর উপজেলার পঁচারবাড়ি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন শিবপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল ইসলাম।

আহতদের শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে সেখানে মারা যান লামিয়া । আহতদের মধ্যে রহিম (৩৮) ও মজিবুর রহমান (২৬) নামে দুই যাত্রীকে নরসিংদী জেলা হাসপাতালে এবং অপর আহত নিহত লামিয়ার মা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা আসমউল হুসনাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মনোহরদী থেকে শিবপুরগামী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা শিবপুরের পঁচারবাড়ি নামক স্থানে পৌঁছুলে বিপরীত দিক ঢাকা থেকে মনোহরদীগামী রয়্যাল পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস চাপা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই চালক রিপন মিয়া মারা যায় ও চারজন যাত্রী আহত হয়।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
close
close