ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:২৭

প্রিন্ট

আবরারের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন

আবরারের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন
নোয়াখালী প্রতিনিধি

আদালতের নির্দেশে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র নাঈমুল আবরার রাহাতের মরদেহ দাফনের ৮ দিন পর কবর থেকে উত্তোলন করা হয়। শনিবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইলিশায় রিসিলের উপস্থিতিতে সোনাইমুড়ী উপজেলার ৮নং সোনাপুর ইউনিয়নের ধন্যপুর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

মরদেহ উত্তোলনের সার্বিক বিষয়টি তদারকি করেন, সোনাইমুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টিনা পাল ও সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুস সামাদ। এসময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও মোহাম্মদপুর থানার ইন্সপেক্টর মো. আব্দুল আলিম এবং পুলিশ এর ৪ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার ইন্সপেক্টর মো. আব্দুল আলিম জানান, মরদেহ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গত ৬ নভেম্বর আবরার বাবা মজিবুর রহমান বাদী হয়ে প্রথম আলো কর্তৃপক্ষের অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করে দৈনিকটির সম্পাদকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর হাকিম মো. আমিনুল হক মামলাটি আমলে নিয়ে কবর থেকে মরদেহ তুলে ময়না তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। বিজ্ঞ আদালত একই আদেশে ১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে মোহাম্মদপুর থানাকে নির্দেশ দিয়েছেন। মামলায় প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের নাম উল্লেখ করে বলা হয় সঠিকভাবে বিদ্যুতের ব্যবস্থাপনা না করে এরকম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে এবং এতে নিরাপত্তা মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

ঘটনা ঘটার পর রেসিডেন্সিয়াল কলেজের উল্টো পাশের সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আবরারকে না নিয়ে উদ্দেশ্যমূলকভাবে মহাখালীর ইউনির্ভাসেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। বাদী তার আরজিতে আরো বলেন, কর্তৃপক্ষ আমাকে কিছুই জানায়নি। তার বন্ধু ও সহপাঠীর মাধ্যমে মৃত্যুর সংবাদ জেনেছি অথচ আনুমানিক ৩টায় সে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলেও ৪টা ১৫ মিনিটে ইউনির্ভাসেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মজিবুর রহমান দাবি করেন, তাকে ভুল বুঝিয়ে ময়না তদন্ত ছাড়া মরদেহ গ্রহণের জন্য মুছলেখা নেয়া হয়েছিল।

উল্লেখ্য, গত ১ নভেম্বর প্রথম আলোর ব্যবস্থাপনায় একটি অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ নবম শ্রেণির ছাত্র নাঈমুল আবরার নিহত হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ
  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত