ঢাকা, সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শিরোনাম

৫ বছরে ১ হাজার কোটি টাকা আয় করবে জেনেক্স ইনফোসিস

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১০ নভেম্বর ২০২২, ১৭:৫৩  
আপডেট :
 ১০ নভেম্বর ২০২২, ১৮:০৪

৫ বছরে ১ হাজার কোটি টাকা আয় করবে জেনেক্স ইনফোসিস
নিজস্ব প্রতিবেদক

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আইটি খাতের প্রতিষ্ঠান জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড সম্প্রতি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাথে (এনবিআর) চুক্তি করেছে। এর ফলে কোম্পানিটির প্রতিবছর আয় হবে ২১২ কোটি টাকা। এ হিসেবে আগামী ৫ বছরে কোম্পানিটির আয় হবে ১ হাজার ৬০ কোটি টাকা। এ আইটি প্রতিষ্ঠানটি গ্রামীনফোন, রবি, এয়ারটেলসহ দেশ বিদেশের ১০০'র বেশি কোম্পানিকে আইটি সংশ্লিষ্ট সেবা দিয়ে আসছে।

রাজস্ব আহরণে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) প্রযুক্তিগত সেবা দেয়ার লক্ষ্যে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান জেনেক্স ইনফোসিস ৩ নভেম্বর একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে জেনেক্স ইনফোসিস। কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ৬ নভেম্বর এ চুক্তি অনুমোদন করেছে। এই চুক্তির আওতায় আগামী ৫ বছরে ৩ লাখ ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) ও সেলস ডাটা কনট্রোলার (এসডিসি) মেশিন সাপ্লাই এবং ইনস্টল করবে জেনেক্স। চুক্তিটির মেয়াদ ১০ বছর।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ(ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

চুক্তির শর্তানুযায়ী জেনেক্সকে প্রতিটি জোনে প্রথম বছরে ন্যূনতম বিশ হাজার ইএফডি ও এসডিসি যন্ত্র স্থাপন করতে হবে এবং চুক্তির পাঁচ বছরের মধ্যে প্রতিটি জোনে মোট ১ লাখ করে তিনটি জোনে পর্যায়ক্রমে ৩ লাখ ভ্যাট যন্ত্র সরবরাহ ও স্থাপন করতে হবে। ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) ও সেলস ডাটা কনট্রোলার (এসডিসি) মেশিন সরবরাহ, ব্যবহার এবং খুচরা পর্যায়ে আদায় করা ভ্যাটের তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেডের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। চুক্তির আওতায় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি খুচরা প্রতিষ্ঠানে ভ্যাট যন্ত্র বিতরণ, রক্ষণাবেক্ষণ ও ভ্যাট আদায়ের কাজ করবে।

এ চুক্তির আওতায় প্রতিষ্ঠানটি কাস্টমস এক্সাইজ এবং ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা (উত্তর) এবং কাস্টমস এক্সাইজ অ্যান্ড ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা (পশ্চিম) এর এখতিয়ারভুক্ত এলাকা। জোন ২: কাস্টমস এক্সাইজ এবং ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা (দক্ষিণ) এবং কাস্টমস এক্সাইজ এবং ভ্যাট কমিশনারেট, ঢাকা (পূর্ব) এর এখতিয়ার এলাকা এবং ঢাকা পূর্ব জোন ৩ এর ব্যবসায়িক প্রহিষ্ঠানগুলোর জন্য ফিসক্যাল ডিভাইস ম্যানেজম্যান্ট সিস্টেম( এফিইডিএমএস) সেবা দেবে।

এ চুক্তির আওতায় জেনেক্স যোগ্য পাইকারী ব্যবসায়ী এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস সরবারাহ করবে। এর মাধ্যমে ভ্যাট এবং এবং সম্পূরক শুল্ক আদায়ে পতিষ্ঠানটি সহযোগিতা করবে।

এনবিআরের সাথে ১০ বছর মেয়াদী এ চুক্তির অধীনে কেম্পানিটি ভ্যাট এপিআই সিস্টেম নামে একটি সফটওয়্যার তৈরি করবে যা ইএফডি এবং এসডিসি,র সাথে বর্তমানে বাজারে প্রচলিত ইআরপি এবং পিওএস সিস্টেমের সমন্বয় সাধন করবে।

জেনেক্স ইনফোসিস ২০১৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানিটির মোট শেয়ার রয়েছে ১১ কোটি ৩৫ লাখ ৪৬ হাজার ৪০০ টি। এর মধ্যে কোম্পানিটির পরিচালকদের হাতে রয়েছে ৩১.৬৮ শতাংশ শেয়ার। ডিএসই,র ওয়েবসাইট থেকে প্রাাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জেনেক্সের অক্টোবর মাসের তথ্য অনুযায়ী প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ২৮.৪২ শতাংশ যা গতমাসের তুলনায় ৫.৭১ শতাংশ বেড়েছে। সেপ্টেম্বর মাসে প্রতিষ্ঠনিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ২২.৭১ শতাংশ শেয়ার ছিল। এছাড়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ৩৯.৯০ শতাংশ শেয়ার।

বৃহস্পতিবার কোম্পানিটির সর্বশেষ ১১২.৭০ টাকায় লেনদেন হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত