ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ২৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩০ জুন ২০১৯, ১৭:২৪

প্রিন্ট

বিকাশের ডিসবার্সমেন্ট সল্যুশন ব্যবহার করবে হিমালয়া

বিকাশের ডিসবার্সমেন্ট সল্যুশন ব্যবহার করবে হিমালয়া
জার্নাল ডেস্ক

এখন থেকে বিকাশের মাধ্যমে হিমালয়া ড্রাগ কোম্পানি লিমিটেড তাদের রিটেইলারদের বিভিন্ন ধরনের বাণিজ্যিক ইনসেনটিভ প্রদান করবে।

সম্প্রতি বিকাশের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বিকাশ ও হিমালয়ার মধ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

চুক্তি অনুযায়ী হিমালয়া ড্রাগ কোম্পানি লিমিটেডের কর্মীরা বিভিন্ন রকম ইনসেনটিভ তাদের বিকাশ একাউন্টের মাধ্যমে পাবেন। একাউন্টে টাকা পাওয়ার সাথে সাথেই তারা সেটা ব্যবহার করে ফান্ড ট্রান্সফার থেকে শুরু করে যে কোনো নাম্বারে ব্যালেন্স রিচার্জ, বিল পেমেন্ট, কেনাকাটার বিল পরিশোধ কিংবা দু’লক্ষাধিক এজেন্ট পয়েন্টের যে কোনোটি থেকে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। এমনকি তারা চাইলে নিজ একাউন্টে টাকা জমা রেখে মুনাফাও অর্জন করতে পারবেন।

বিকাশের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার মিজানুর রশীদ এবং হিমালয়া ড্রাগ কোম্পানির অপারেশন ম্যানেজার সিদ্ধার্থ রায় নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

এছাড়াও এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিকাশের কমার্শিয়াল বিভাগের হেড অফ গভর্নমেন্ট প্রজেক্ট এন্ড বিজনেস সেলস, মাসরুর চৌধুরী; হেড অফ কর্পোরেট সেলস, এ টি এম মাহবুব আলম; হিমালয়া কোম্পানি লিমিটেডের ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার আবদুর রহিম অর্ক ও অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

ব্র্যাক ব্যাংক, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানি ইন মোশন, বিশ্ব ব্যাংক গ্রুপের অন্তর্গত ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশন, বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন এবং অ্যান্ট ফিনান্সিয়াল-এর যৌথ মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান বিকাশ, ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ন্ত্রিত পেমেন্ট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল/ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দিয়ে আসছে।

১৯৩০ সাল থেকে দীর্ঘ অভিজ্ঞতা, বৈজ্ঞানিক গবেষণা ও আয়ুর্বেদের শক্তির মাধ্যমে হিমালয়া কোম্পানি বিভিন্ন ধরণের প্রাকৃতিক, কার্যকর ও নিরাপদ পণ্য তৈরি ও সরবরাহ করে আসছে যা মানুষের ত্বকের স্বাস্থ্য ও জীবনীশক্তি পুনরুদ্ধারে সহায়তা করছে। কোম্পানিটি বিশ্বব্যাপী ৯০টির-ও বেশি দেশে কাজ করছে।

চার লক্ষাধিক ডাক্তার তাদের পণ্য ব্যবহার করতে পরামর্শ দিয়ে থাকেন, তারা বিশ্বব্যাপী প্রতি সেকেন্ডে ১৬টি করে পণ্য বিক্রি করে এবং এক মিলিয়নের বেশি গ্রাহক এখন তাদের পণ্যে ভরসা রাখেন। কোম্পানির ভিশন হলো হারবাল স্বাস্থ্যসেবা ও পণ্যের মাধ্যমে প্রতিটি বাড়িতে সুস্থতা আনা। সূচনা থেকেই এই প্রতিষ্ঠান নিরাপদ, প্রাকৃতিক এবং উদ্ভাবনী উপায়ে মানুষকে উন্নত ও সুস্থ জীবনযাপন করতে সহায়তা করে আসছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত