ঢাকা, সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ২৯ আষাঢ় ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:৪৪

প্রিন্ট

ডা. মাহাতাব লিয়াকতের মৃত্যু

আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজে শোকসভা

আনোয়ার  খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজে শোকসভা
নিজস্ব প্রতিবেদক

আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের সাবেক মেধাবী ছাত্র ডা. মাহাতাব লিয়াকতের অকাল মৃত্যুতে কলেজটির উদ্যোগে বুধবার এক শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে কলেজটির লেকচার গ্যালারিতে এই শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় তার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে দাঁড়িয়ে এক মিনিটের নীরবতা পালন করা হয়।

এ সময় বক্তব্য দেন, আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফজলুর রহমান, আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এখলাসুর রহমান ও আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. হাবিবুজ্জামান চৌধুরী, হাসপাতালটির পরিচালক ডা. জসিম উদ্দিন খান, অধ্যাপক ডা. এহতেশামুল হক, অধ্যাপক ডা. জাকিয়া সুলতনা ও তার সহপাঠীরা।

মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ এখলাসুর রহমান বলেন, ছাত্র হিসেবে তাকে আমি অনেক স্নেহ করতাম। একজন আদর্শ ডাক্তার হতে যেসব গুণাবলী থাকা দরকার সবকিছুই মাহাতাবের ছিলো। ছোট-বড় যেকোনো কাজ সে আগ্রহ ও গুরুত্বের সঙ্গে করতো। তার মাঝে আমি নিজের ছায়া দেখতাম। মাহাতাবের এই অকাল মৃত্যুতে আমরা সবাই অনেক কষ্ট পেয়েছি।

অধ্যাপক জাকিয়া সুলতানা তার বক্তব্যে বলেন, মাহাতাবের চলাফেরা ছিল অনেকটা ধূমকেতুর মত। অধ্যাপনা জীবনে তার মত ছাত্র খুব কমই পেয়েছি, যে কিনা একসাথে ইন্টার্ন ও এফসিএফ করতে পারতো। আজকের এইদিনে আমাদের এভাবে উপস্থিত হতে হবে সেটা কাম্য ছিলো না। তারপরও সত্য মেনে নেয়া ছাড়া তো উপায় নেই।

শোক সভায় অন্যান্য শিক্ষক ও সহপাঠীরা কথা বলতে গিয়ে বারবার কান্নায় ভেঙে পড়েন। উপস্থিত সবাই তার আত্মার মাগফেরাতের জন্য দোয়া চান।

উল্লেখ্য, ডা. মাহাতাব লিয়াকত আনোয়ার খান মডার্ণ মেডিকেল কলেজের ৫ম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। এখান থেকে পাশ করার পর রাজধানী একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। চার মাস আগে তিনি দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হন। এরপর দীর্ঘদিন কুয়েতের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই গত সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মার যান ডা. মাহাতাব লিয়াকত। বৃহস্পতিবার লাশ দেশে এলে তার গ্রামের বাড়ি বিক্রমপুরে দাফন করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
best