ঢাকা, সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭ আপডেট : ২১ মিনিট আগে

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:২৬

প্রিন্ট

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী: সুরে, ছন্দে ঝংকার তুলবেন দেবজ্যোতি

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী: সুরে, ছন্দে ঝংকার তুলবেন দেবজ্যোতি
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও দেবজ্যোতি মিশ্র

বিনোদন প্রতিবেদক

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হবে আসছে ১৭ মার্চ। দিনটি উপলক্ষ্যে স্মরণকালের সবচেয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজন রেখেছে বাংলাদেশ সরকার। সেই আযোজনের মধ্য রয়েছে সংগীতও। এদিন শুধু বাংলাদেশের শিল্পীরাই নন, সংগীত পরিবেশন করবেন বন্ধুদেশ ভারতের শিল্পীরাও।

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে উদযাপনের জন্য কোনো কমতিই রাখছে না সরকার। এদিন সুরে, ছন্দে সেজে উঠবে রাজধানী ঢাকা। মেমোরিয়াল অর্কেস্ট্রাল স্কোর নিয়ে এদিন হাজির হবেন ভারতের বিখ্যাত সুরকার ও সংগীতকার দেবজ্যোতি মিশ্র। অভিনব মৌলিক সংগীত তৈরি হবে এই সংগীতজ্ঞের হাত ধরে।

বঙ্গবন্ধুর পছন্দের কিছু গান এক সুতোয় বাঁধা হবে সে দিন। চলবে ১৫ মিনিটের মতো। এরপর আরেকটি ১২ মিনিটের স্কোর বাজানো হবে। তাতে থাকবে বিশেষ আকর্ষণ। মুক্তিযুদ্ধের সময়ে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণের ছোট ছোট টুকরো নেপথ্যে বাজানো হবে। বঙ্গবন্ধুর গলায় সে দিনের টুকরো টুকরো শব্দ ভেসে উঠবে ঢাকার আকাশে। বড় পর্দা টাঙানো হবে, যেখানে আলো আঁধারি ছায়া দিয়ে ফুটে উঠবে ভাষা।

এ বিষয়ে দেবজ্যোতি মিশ্র বলেন, ‘শেখ মুজিবুর রহমান- এই নামটির সঙ্গে সেই ছোটবেলা থেকে পরিচয়। মুক্তিযুদ্ধের খবর আসত রেডিওতে। দেবদুলাল বন্দ্যোপাধ্যায় খবর পড়তেন। সারা পাড়ায় রেডিও চলত। বাড়িতে মা, বাবা, ঠাকুমা সবাই রেডিওর সামনে যেন থমকে যেতেন! সে সব আবছা দিনগুলোর কথাই মনে পড়ে যাচ্ছে।’

তখনকার পূর্ববাংলা এই সুরকারের মায়ের দেশ, বাবার দেশ। এটা ভাবলেই একটা আবেগ কাজ করে তার। তিনি জানালেন, ‘যিনি বাংলাদেশের রূপকার, তাঁর জন্ম শতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে ভারত-বাংলাদেশের সংগীতশিল্পী বন্ধুদের নিয়ে অনুষ্ঠান করব, এটা ভেবেই গর্ব হচ্ছে, রোমাঞ্চ হচ্ছে। আমার মায়ের কৈশোরকে আমার তরফ থেকে একটা শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাব সে বাংলাদেশে গিয়ে।’

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে কলকাতা থেকে স্ট্রিং সেকশনের (তারের বাদ্যযন্ত্র, যেমন বেহালা, চেলো, ভিওলা, কন্ট্রাভাস ইত্যাদি) শিল্পীরা আসছেন বাংলাদেশে। এপার বাংলাতেও দেবজ্যোতি মিশ্রর বন্ধুরা রয়েছেন, যারা অর্কেস্ট্রায় অংশগ্রহণ করবেন। ৫০ জনের বড় একটি কয়্যারও থাকছে। সব মিলিয়ে ১৫০ জন সংগীতশিল্পীরা এক সঙ্গে গানে মাতবেন এদিন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত