ঢাকা, সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ৮ মিনিট আগে
শিরোনাম

স্বাগতম ২৩

মানসম্মত কাজগুলোর ভিউ বাড়ানোই এখন টার্গেট: তৌসিফ

  ইমরুল নূর

প্রকাশ : ০৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫:৪৪  
আপডেট :
 ০৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬:০১

মানসম্মত কাজগুলোর ভিউ বাড়ানোই এখন টার্গেট: তৌসিফ
ছোট পর্দার জনপ্রিয় তারকা তৌসিফ মাহবুব
ইমরুল নূর

বাইশকে বিদায় জানিয়ে উদ্ভাসিত হয়েছে তেইশের নতুন সূর্য। গেল বছরটা টেলিভিশন তারকাদের পক্ষেই ছিলো, প্রতিভা গুণে অনেকেই স্বাক্ষর রেখেছেন তাদের কর্মে, জ্বলে উঠেছেন স্ব-মহিমায়। পুরনো হিসাব ভুলে নতুন উদ্যমে নতুন ছক কষছেন সকলেই। নতুন বছরে নিজেকে ছাড়িয়ে যেতে চান অনেকেই। নতুন বছরের এ আয়োজনে তেমনই কিছু প্রত্যাশা ও কর্ম-পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় তারকা তৌসিফ মাহবুব।

গেল দুই বছর ধরে নিজেকে অনেকটা গুছিয়ে নিয়ে এসেছেন তৌসিফ, পার করছেন সুসময়। মানহীন কাজের সংখ্যা নামিয়ে এনেছেন শূণ্যতে, উপহার দিয়েছেন প্রশংসামূলক কাজ। সেদিক থেকে বাইশ সালটা ছিল তার। অভিনয়ে এনেছেন নতুনত্ব এবং নিজেকে গড়েছেন নতুন আঙ্গিকে আর দু হাতে কুড়াচ্ছেন প্রশংসা। এই অবেলায়, মেঘে ঢাকা রৌদ্দুর, শুরুটাই সুন্দর, লিলুয়া, সাইলেন্স, এখানেই শেষ নয়, ওরাও বাড়ি যাবে- কাজগুলো দিয়ে তিনি ছিলেন আলোচনার তুঙ্গে। সেই ধারাবাহিকতা সামনেও ধরে রাখতে চান এই তারকা।

গেল বছরের শুরতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, আর মানহীন কাজ করবেন না। সেটা কতটুকু রাখতে পেরেছেন বলে মনে করেন এবং কি পরিবর্তন দেখতে পেয়েছেন?

হ্যাঁ, একদমই তাই। আমি শতভাগ চেষ্টা করেছি সেই কথা ধরে রাখতে। যখনই কোন কাজ নিয়ে বসি তখনই সে বিষয়টা আমার মাথায় থাকে আর তাই যে কয়েকটা কাজই করেছি চেষ্টা করেছি শুধু মানস্মমত কাজগুলোর সঙ্গে নিজেকে যুক্ত রাখতে এবং দর্শকদেরকে নতুন কিছু উপহার দিতে। পরিবর্তন বলতে হেটার্সদের মুখেও নিজের কাজের প্রশংসা শুনেছি। আমার কথা অনুযায়ী আমি শুধু চেষ্টা করেছি। তবে কতটা সফল হয়েছি সেটা দর্শকরাই ভালো বলতে পারবেন।

অনেকগুলো মানসম্মত এবং প্রশংসনীয় কাজ উপহার দিয়েছেন। মানের দিক দিয়ে ঠিক থাকলেও অনেকগুলো কাজের ভিউ আবার খুব একটা বেশি নয়। এটা কেন হয় বলে মনে করেন বা কীভাবে দেখেন আপনি?

ভিউ কিন্তু কখনোই কাজের মানদন্ড না। ভিউ শুধু একটা সংখ্যা মাত্র। হ্যাঁ, এটা ঠিক ট্রেন্ডি কাজগুলোর যতটা ভিউ হয় কোয়ালিটিফুল কাজগুলোর অনেক ক্ষেত্রেই তা হয় না। তার মানে কিন্তু কাজটিকে এড়ানো যায় না। যখন ভিউয়ের জন্য কাজ করেছি তখন সবাই মানহীন বলতো। কিছু পেতে গেলে কিছু হারাতেই হবে। আর তাই মানসম্মত কাজগুলোর ভিউ বাড়ানোই এখন আমার টার্গেট।

সবার মতে, গত বছরটাতে দর্শকরা নতুন এক তৌসিফকে দেখতে পেয়েছে। কাজ দিয়ে বছরজুড়ে ছিলেন আলোচনায়। আপনার মতে সময়টা কেমন গিয়েছে?

আমরা যারা শিল্পী তারা কিন্তু দর্শকদের জন্যই কাজ করি। নিজের শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করেছি। দর্শকরা কাজগুলো দেখেছেন, ভালোবাসা দিয়েছেন। এই ভালোবাসাটুকুই তো চাই। সত্যি বলতে, ২০২২ সালটা আমার জন্য নতুন একটা শুরু ছিলো। বছরটির শুরু থেকেই নিজেকে অনেক পরিবর্তন করতে চেয়েছি। প্রত্যেকটা উৎসবে কাজের ক্ষেত্রে নতুন নতুন অভিজ্ঞতা হয়েছে, অনেক কিছু দেখেছি, শিখেছি। তাই বলা যায়, বছরটা আমার জন্য শিক্ষণীয় ছিল।

বছর শেষে প্রাপ্তি ও অপ্রাপ্তি কি?

প্রাপ্তি হিসেবে বলবো, আমার ভক্তদের সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হওয়া আর অপ্রাপ্তি- নিজের কাছের মানুষদের থেকে দূরে সরে আসা।

নতুন বছরের শুরুতে সবাই অনেক পরিকল্পনা করে থাকেন, কাজ নিয়ে নতুন ছক কষেন। আপনিও নিশ্চয় এর ব্যতিক্রম না। নতুন বছরে আপনার পরিকল্পনা কি জানতে চাই...

আগের ধারাবাহিকতাটা ধরে রাখতে চাই আর নতুন বছরে যাতে আগের চেয়েও অনেক ভালো কিছু করতে পারি, সে চেষ্টাই থাকবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত