ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৫৬

প্রিন্ট

দিল্লির সবচেয়ে বেশি বয়সী ভোটার কালীতারা

দিল্লির সবচেয়ে বেশি বয়সী ভোটার কালীতারা
অনলাইন ডেস্ক

দিল্লি বিধানসভার নির্বাচন শুরু হয়েছে শনিবার সকাল ৮টা থেকে। এ নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি বয়সী ভোটার হচ্ছেন কালীতারা মণ্ডল। তার বয়স ১১১ বছর। শনিবারও দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে তিনি ভোট দেবেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি।

বয়সের কারণে কালীতারার সব দাঁত পড়ে গিয়েছে। কিন্তু মাছের প্রতি তার ভালবাসা আজও অটুট। অবিভক্ত ভারতে ১৯০৮ সালে জন্ম কালীতারার। এই উপমহাদেশকে নানা ভাঙাগড়ার মধ্যে দিয়ে যেতে দেখেছেন। দেখেছেন দু'টি দেশভাগ। ভারতে দু'-দু'বার শরণার্থী হিসেবে কাটাতে হয়েছে তাকে। অবশেষে বাসস্থান খুঁজে পেয়েছেন‌ ভারতের রাজধানী দিল্লিতে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের ভোটদানের অভিজ্ঞতার কথা বলেছেন ভারতের প্রায় সব ক'টি নির্বাচন দেখা ও তাতে অংশ নেওয়া প্রবীণ এই ভোটর। তার স্মৃতিতে আজও উজ্জ্বল ব্যালটে ভোট দেওয়ার সেই অভিজ্ঞতাও।

তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি মনে করতে পারি, তারা (নির্বাচনী কর্মকর্তারা) আমার আঙুলের ছাপ নিত। তারপর ব্যালট পেপারটা ভাঁজ করে বাক্সে ফেলতে হত। আমি বড় মেশিনেও (ইভিএম) ভোট দিয়েছি।’দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ আজ, বিজেপি-আপের লড়াইয়ে নজর।

১৯৭১ সালের দেশভাগের পর থেকে কালীতারার পরিবার দিল্লির চিত্তররঞ্জন পার্কের বাসিন্দা। কালীতারার জন্ম অবিভক্ত ভারতে, বর্তমান বাংলাদেশের বরিশালে। ১৯০৫ সালে ঐতিহাসিক বঙ্গভঙ্গের ৩ বছর পর। পরিবারের সবচেয়ে ছোট সদস্য তার ৭ মাস বয়সী নাতনির জন্মেছে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের সাত মাস পর।

কালীতারার ছেলে সুখরঞ্জন বলেন, ‘তিনি ভোট দিতে বেশ আগ্রহী। গত বছর লোকসভা নির্বাচ‌নের সময়ও বুথে গিয়ে ভোট দিয়ে এসেছিলেন। এবারও হাতে কালি লাগানোর জন্য উৎসুক তিনি।’

এক বর্ষীয়ান নির্বাচনী কর্মী জানাচ্ছেন, মণ্ডল পরিবার পোস্টাল ব্যালটের জন্য আবেদন করলেও তার সময়সীমা ফুরিয়ে গিয়েছিল। তবে নির্বাচন কমিশন কালীতারা এবং তার পরিবারের সদস্যদের ভোটকেন্দ্রে আনার জন্য বিশেষ গাড়ির ব্যবস্থা করেছে বলেও তিনি জানান।

কালীতারা মণ্ডলের নাতি সুরজ জানাচ্ছেন, তার দিদি ভোট দিতে উৎসাহী। তারা দাদির সঙ্গে সকলে মিলে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেবেন।

সমস্ত ভোটারদের উদ্দেশে শত বর্ষ পেরিয়ে আসা এই ভোটার বলেন, ‘সকলের উচিত ভোট দেওয়া, কেননা প্রতিটি ভোট গুরুত্বপূর্ণ।’

দিল্লি রাজ্যে মোট ১৩২ জন ভোটার রয়েছেন‌ যাদের বয়স একশো পেরিয়েছে। তাদের মধ্যে ৬৮ জন পুরুষ ও ৬৪ জন মহিলা। তাদের ভোটের দিন ‘ভিআইপি' হিসেবে গণ্য করা হবে বলে নির্বাচনী কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

এমএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত